আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে কেউ যাবেন না: তাপস

news-image
দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে কাউকে না যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী শেখ ফজলে নূর তাপস।

তিনি বলেছেন, আমি পূর্ণ সময় দক্ষিণের জনগণের নাগরিক সুবিধা নিশ্চিতে কাজ করে যাব। অনেকের মনে ক্ষোভ থাকতে পারে মনোনয়ন না পাওয়ায়। দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে কেউ যাবেন না। সবার সহযোগিতা কামনা করছি।

এ সিটিতে বর্তমান মেয়র সাঈদ খোকন। তিনি মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন। তবে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে তাপসকেই চূড়ান্ত করা হয়।

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের এ মেয়র প্রার্থী আরো বলেন, জনগণ যদি আমাকে নির্বাচিত করে, তবে বৃহত্তর পরিসরে পুরান ঢাকার ঐতিহ্য সংরক্ষণ করে স্বমহিমায় প্রস্ফুটিত করব।

তিনি বলেন, রাজধানীতে যারা অবহেলিত, তাদের সব ধরনের নাগরিক সুবিধা দেওয়া হবে। ইনশা আল্লাহ নির্বাচিত হতে পারলে ত্রিশ বছর মেয়াদি মহাপরিকল্পনার মাধ্যমে ২০৪১ এর স্বপ্ন সফল করব।

দলের মনোনয়ন চূড়ান্ত হওয়ার পরে রবিবার রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।

এর আগে তাপসকে ঢাকা দক্ষিণ সিটির মেয়র পদে নৌকার প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

ফজলে নূর তাপস বলেন, যারা দলীয়ভাবে সিদ্ধান্ত নিয়ে আমাকে মনোনয়ন দিয়েছেন, তাদের ধন্যবাদ জানাই। ঢাকা-১০ আসনের আপামর জনগণকে কৃতজ্ঞতা জানাই যারা সব সময় অনেক ভালোবাসা দিয়ে আলিঙ্গন করে আমার ওপর আস্থা রেখেছেন।

তিনি বলেন, এলাকার মানুষ যেমন ভালো বেসেছেন, আস্থা রেখেছেন, তেমনি দক্ষিণের সব জনগণ আস্থা রাখবেন বলে আমি আশা করি।

আওয়ামী লীগের এই মেয়র প্রার্থী আরো বলেন, আগেও সংবাদমাধ্যমে বলেছি, আমি উপলব্ধি করেছি, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে উন্নত বাংলাদেশের জন্য নিরলস কাজ করে চলেছেন এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত বাংলাদেশ বিনির্মাণের লক্ষ্য দিয়েছেন, এর জন্য উন্নত রাজধানী প্রয়োজন। আমি এই সুযোগটা গ্রহণ করতে চেয়েছি।

নাগরিকসেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেওয়ায় এ সময় উত্তরের প্রয়াত মেয়র আনিসুল হককে স্মরণ করেন ফজলে নূর তাপস। তার কাজ দেখে অনুপ্রাণিত হয়েছেন বলেও জানান তাপস।

এ জাতীয় আরও খবর

কোয়ারেন্টিন শেষে বিদেশফেরত ২১৯ বাংলাদেশি কারাগারে

যত্রতত্র পশুরহাটের অনুমতি দেয়া যাবে না : ওবায়দুল কাদের

ভেন্টিলেটর কাজে লাগে না, মানুষ মরে যায়: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

করোনার ভয়াবহতা এখনও বাকি : ডব্লিওএইচও

আগামীকাল সকাল ১১টা থেকে সদরঘাটে প্রত্যক্ষদর্শীদের সাক্ষ্য নিবে তদন্ত কমিটি

সুন্দরগঞ্জে শিশু ধর্ষণচেষ্টা, যুবক গ্রেপ্তার

ভাগ্নিকে আপত্তিকর অবস্থায় দেখে ফেলেন, এরপর বাবা-মামা মিলে হত্যা

ধর্ষণ ও যৌন হয়রানির ঘটনায় মহিলা পরিষদের উদ্বেগ

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে সাংবাদিকদের গ্রেপ্তারে সম্পাদক পরিষদের তীব্র নিন্দা

ওয়ারীতে গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগে স্বামী তিন দিনের রিমান্ডে

ডাক্তারদের থাকা-খাওয়ার কোনো দুর্নীতি হয়নি : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

জাহিদকে সরিয়ে মতিয়াকে স্বাস্থ্যমন্ত্রী করার দাবি সংসদে