বুধবার, ০৩ অক্টোবর ২০১৮, ০৩:০৪ অপরাহ্ন

মানিকগঞ্জের শিবালয়ে ১৫ জেলের কারাদণ্ড ,২ জেলের জরিমানা ও কারেন্ট জাল ধ্বংস

মানিকগঞ্জের শিবালয়ে পদ্মা ও যমুনা নদীতে মা ইলিশ শিকারের অপরাধে ১৫ জেলের এক বছর করে কারাদন্ড ও দুই জেলের ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক শিবালয় উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভুমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. জাকির হোসেন । অভিযানে জব্ধ করা এক লাখ মিটার কারেন্ট জাল ধ্বংস এবং ৪০ কেজি ইলিশ মাছ উদ্ধার করে স্থানীয় এতিম খানায় দেওয়া হয়েছে।

ভ্রাম্যমান আদালতে কারাদন্ডপ্রাপ্তরা হলেন- মো. উজ্জ্বল শেখ,  মো. শামিম খাঁ,  মো. হায়দার শেখ, মো. শফিক মোল্লা,  মো. তালেব মোল্লা, মো. মিলন মন্ডল, মো. আলতাফ, মো. হাবু শেখ, মো. একাব্বর শেখ, মো. আব্দুল, আহম্মদ, মো. রমজান শেখ, মো. আকতার হোসেন, মো. হাফিজ উদ্দিন ও মো. লতিফ শেখ।

জেলা মৎস কর্মকর্তা মো: মনিরুজ্জামান বলেন, সোমবার ভোর থেকে উপজেলা প্রশাসন, মৎস বিভাগ ও পুলিশ প্রশাসন যৌথভাবে দুপুর ১২টা পর্যন্ত শিবালয় উপজেলার পদ্মা ও যমুনা নদীতে অভিযান চালায়। এসময় সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে নদীতে মা ইলিশ শিকারের অপরাধে ১৭ জেলেকে আটক ,এক লাখ মিটার কারেন্ট জাল জব্দ ও ৪০ কেজি ইলিশ মাছ উদ্ধার করা হয়।

শিবালয় উপজেলা প্রাঙ্গণে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে ১৫ জনের এক বছর করে কারাদণ্ড এবং দুজনের অপ্রাপ্ত বয়স হওয়ায় ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া নিয়ম মাফিক জাল পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়। ইলিশ ধরার ১০টি নৌকা ডুবিয়ে দেওয়া হয় নদীতে। আর ইলিশ মাছগুলো স্থানীয় দুইটি এতিমখানায় দেওয়া হয়।

আগামী ৩০ অক্টোবর পর্যন্ত এই অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও তিনি জানান।