আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

আটক আসামির ছুরিকাঘাতে পুলিশ সদস্যের মৃত্যু

news-image

রংপুরে মাদকসেবীর ছুরিকাঘাতে পিয়ারুল ইসলাম নামে পুলিশের এক সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) নিহত হয়েছেন। শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) সকাল সোয়া ১১টার দিকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

এর আগে, শুক্রবার রাতে রংপুরের মেট্রোপলিটন হারাগাছ থানার বাহারকাছনা এলাকায় মাদক মামলার আসামিকে ধরতে গিয়ে আসামির ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত হন এএসআই পিয়ারুল ইসলাম।

এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে মাদক ব্যবসায়ী পলাশকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হারাগাছ থানার ওসি শওকত হোসেন।

কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলার বিদ্যানন্দ ইউনিয়নের ডাঙ্গারহাট এলাকায় চন্দ্রেরপাড় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুর রহমান মিন্টু মিয়ার ছেলে তিনি। ২০১২ সালে পুলিশে যোগদান করেন পিয়ারুল ইসলাম। মৃত্যুকালে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের হারাগাছ থানায় কর্মরত ছিলেন পিয়ারুল।

পুলিশ জানায়, শুক্রবার রাতে হারাগাছ থানার এএসআই পিয়ারুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল পুলিশ নগরীর বাহারকাছনা এলাকায় মাদক ব্যবসায়ী পলাশকে ১৫১ পিস ইয়াবা ও গাঁজাসহ আটক করে। এ সময় আসামি পলাশ পুলিশ কর্মকর্তা এএসআই পিয়ারুলকে ছুরি দিয়ে গুরুতর আহত করে। তাকে দ্রুত রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ শনিবার সকাল সোয়া ১১টার দিকে তিনি মারা যান।

হারাগাছ থানার ওসি শওকত হোসেন জানান, এ ঘটনায় হত্যা ও মাদক আইনে পৃথক দুটি মামলা হয়েছে। দুটি মামলারই বাদী পুলিশ। ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের নিকট তার লাশ হস্তান্ত করা হবে।