আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

আদালতে বিচারপ্রার্থীকে ছুরি মেরে লাখ টাকা ছিনতাই

news-image

লক্ষ্মীপুর জেলা জজ আদালতপাড়ায় নোমান হোসেন দুলাল নামে এক বিচারপ্রার্থীর হাতে ছুরি দিয়ে আঘাত করে এক লাখ টাকা ছিনতাই করেছে দুর্বৃত্তরা।

সোমবার বেলা ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আদালতে উপস্থিত বিচারপ্রার্থীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

ঘটনার পরপরই আদালত এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন কোর্ট পুলিশ পরিদর্শক দুলাল কিশোর মজুমদার।

আহত দুলাল সদর উপজেলার বশিকপুর ইউনিয়নের নন্দীগ্রামের মৃত আবদুস সাত্তারের ছেলে। আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়।

পুলিশ, প্রত্যক্ষদর্শী ও ভুক্তভোগীরা জানান, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে সোমবার পারিবারিক বিরোধ নিষ্পত্তির তারিখ ছিল। এ লক্ষ্যে সকালে দুলাল ও তার ভাই বেলায়েত হোসেন রিপন আদালতে আসেন। বিরোধ নিষ্পত্তির ঘটনায় পূর্বনির্ধারিত আড়াই লাখ টাকা ছিল তাদের সঙ্গে। এর মধ্যে দুলালের কাছে ১ লাখ ও রিপনের কাছে দেড় লাখ টাকা ছিল। ঘটনার সময় প্রাকৃতিক ডাকে সাড়া দিতে গেলে অজ্ঞাত পরিচয়ের দুইজন লোক দুলালের ওপর হামলা ও প্যান্টের পেছন পকেটে থাকা টাকা নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এতে দুলাল চিৎকার দিয়ে উঠে ও তাদের বাধা দেন।

একপর্যায়ে ছুরি দিয়ে হাতে আঘাত করে হামলাকারীরা দুলালের কাছ থেকে টাকাগুলো নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে রিপনসহ আশপাশের লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। হামলায় তিনি মাথায়ও আঘাত পেয়েছেন।

ভুক্তভোগী নোমান হোসেন দুলাল বলেন, অচেনা দুইজন লোক আমার ওপর হামলা করে পকেটে থাকা এক লাখ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। এ সময় তারা আমার হাতে ছুরি দিয়ে আঘাত করে।

কোর্ট পুলিশ পরিদর্শক দুলাল কিশোর মজুমদার বলেন, আহত দুলালকে নিয়ে এসে প্রত্যক্ষদর্শীরা ঘটনাটি আমাকে জানিয়েছেন। আমি তাৎক্ষণিক আদালত এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করেছি।

সদর মডেল থানার ওসি জসিম উদ্দিন জানান, ভুক্তভোগীরা থানায় এসেছেন। মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

লক্ষ্মীপুর জজ আদালতের আইনজীবী রাসেল মাহমুদ মান্না বলেন, ঘটনাটি অনাকাঙ্ক্ষিত। এর আগে এমন ধরনের কোনো ঘটনা ঘটেনি। ঘটনার পরপরই বিষয়টি আমরা কোর্ট পুলিশ ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে জানিয়েছি।