আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

ইসরায়েলে বিরুদ্ধে ৬ মাস যুদ্ধ চালানোর মতো অস্ত্র মজুদ রেখেছে হামাস

news-image

টানা ছয় দিন ধরে ফিলিস্তিনিদের ওপর বর্বরতা চালাচ্ছে দখলদার ইহুদিবাদি ইসরায়েল। একের পর এক হামলা চালিয়ে গুড়িয়ে দিচ্ছে ফিলিস্তিনি স্থাপনা। একটার পর একটা নিরীহ প্রাণ যাচ্ছে ইহুদিদের সে হামলায়।

আর ইহুদিদের এমন বর্বরতা রুখতে পাল্টা প্রতিরোধ গড়ে তুলেছে ফিলিস্তিনের ইসলামী প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের সামরিক শাখা শাখা ইয্যাদ্দিন আল কাসসাম ব্রিগেড।

শনিবার এই ব্রিগেডের মুখপাত্র আবু ওবায়দা জানান, আল্লাহ সাহায্যে আমরা দখলদার খুনী ইসরাইলের বিরুদ্ধে ৬ মাস যুদ্ধ চালিয়ে যাওয়ার মতো ক্ষেপণাস্ত্র মজুদ রেখেছি।

হামাসের রকেট হামলায় এক ইসরায়েলি নিহত হবার কয়েক মিনিট পর তিনি এই ঘোষণা দেন। আবু ওবায়দা হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, গাজার আবাসিক ভবনে নির্বিচার বোমা হামলা চালিয়ে ফিলিস্তিনি নাগরিকদের হত্যার প্রতিশোধ হিসেবে ইসরাইলের জন্য শিগগিরই বড় ধরণের পরিণতি অপেক্ষা করছে।

এর আগে, হামাসের ছোড়া রকেট ইসরায়েলের রাজধানী তেলআবিবের রামাত গান এলাকার একটি ভবনে আঘাত হানে। এতে ৫০ বছর বয়সি এক ইসরায়েলি নাগরিক নিহত ও কয়েকজন আহত হয়েছে। এ ছাড়া তেলআবিবের কাছে আরব টাউন, রিশন লিজন এলাকায়ও রকেট বিস্ফোরিত হয়।

ইসরাইলের পক্ষ থেকে রকেট হামলার ছবি টুইট করে জানানো হয়, তেলআবিব মেট্রোপলিটন এলকায় রকেট হামলা চালানো হয়েছে। এটি মধ্য ইসরাইলের রামাত গান আবাসিক এলাকায় বিস্ফোরিত হয়েছে।

গত সোমবার থেকে গাজায় আগ্রাসনের প্রতিশোধ হিসেবে ইসরাইলের রাজধানী তেলআবিবসহ বিভিন্ন এলাকায় দুই হাজারের বেশি রকেট ছুড়েছে ফিলিস্তিনিরা। অন্যদিকে অবৈধভাবে ভূমি দখল করতে জল-স্থল ও আকাশপথে হামলা চালাচ্ছে ইহুদিরা। এরই মধ্যে খুনী ইহুদিদের হামলায় ৩৯ শিশুসহ ১৪০ জন নিরীহ ফিলিস্তিনির মৃত্যু হয়েছে।