আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

এক মাস ধরে পানিবন্দি তারা, দেখার কেউ নেই

news-image

কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা সদরের দক্ষিণ ব্রাহ্মণপাড়া এলাকায় বৃষ্টির পানি জমে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে। নিষ্কাশন ব্যবস্থা না থাকায় পানিবন্দি হয়ে পড়েছে শতাধিক পরিবার। পরিবার-পরিজন ও গবাদিপশু নিয়ে বিপাকে পড়েছেন ভুক্তভোগীরা। এক মাসের বেশি সময় ধরে এই অবস্থা থাকলেও যেন দেখার কেউ নেই। এদিকে জলাবদ্ধতা নিরসনে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সহযোগীতা চেয়েছেন স্থানীয়রা।
সরেজমিনে দেখা গেছে, ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা সদরের দক্ষিণপাড়া এলাকায় শতাধিক পরিবার পানিবন্দি হয়ে আছে। বসতঘরে পানি জমে থাকায় চরম দুর্ভোগে পড়েছেন তারা। উঠানজুড়ে হাঁটু পানিতে স্বাভাবিক চলাচল ও দৈনন্দিন কাজকর্ম ব্যহত হচ্ছে। পানি জমে থাকায় বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া হাঁটুপানি ভেঙে ঘর থেকে বের হচ্ছে না অনেকেই। আবার অনেকেই উঠানে বাঁশের সাকো নির্মাণ করে চলাচল করছেন।
স্থানীয় বাসিন্দা শিরিনা আক্তার বলেন, আমরা গত এক মাস যাবত এভাবেই পানিবন্দি হয়ে আছি। পানির কারণে ঘর থেকে বের হবার সুযোগ নাই। রান্নাঘরে জলাবদ্ধতায় রান্না করারও পরিবেশ নাই। অনেক কষ্ট করে রান্না করতে হয়। এভাবে ছোট ছোট সন্তানদের নিয়ে জীবনযাপন করা কষ্টকর। ছোট বাচ্চাদের নিয়েও সব সময় আতঙ্গে থাকতে হয় আমাদের। ঘর থেকে বের হলেই পানি। ওঠানে এখনো হাটুপানি। গত এক মাস যাবত প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনার ঝুঁকি নিয়ে বসবাস করে আসছি আমরা।

মোহাম্মদ হোসেন মাস্টার জানান, সমস্ত এলাকায় বৃষ্টির পানিতে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়ে আছে। সরকার যে কালভাট দিয়েছে সেগুলোর মুখ সব বন্ধ। আসে পাশের ডোবা ও পুকুরগুলো ভরাট হয়ে গেছে। ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকায় গত ২-৩ বছর যাবত এই এলাকায় এ সমস্যা দেখা দিয়েছে। দ্রুত পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা গ্রহণ না করা হলে আমরা অনেক ক্ষতির সম্মুখীন হব।

জামশেদ আলম জানান, আমাদের এই এলাকায় যে পানি হয়েছে তা যদি নিষ্কাশন না করা হয় তাহলে আমরা চরম বিপর্যয়ের মুখে পড়বো। দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করে পানি নিষ্কাশনের বিষয়ে আমরা স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

ব্রাহ্মণপাড়া সদর (স্থানীয়) ইউপি চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন বলেন, ব্রাহ্মণপাড়া দক্ষিণপাড়া এলাকায় মানুষ নিয়ম না মেনে বাড়িঘর নির্মাণ করায় ওই এলায় পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা বন্ধ হয়ে গেছে। এ কারণে বর্ষা মৌসুমে জমে থাকা পানির জন্য ওই এলাকায় মানুষ স্বাভাবিক চলাচলে সমস্যার পরতে হয়। এ বিষয়ে পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে এবং দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ফৌজিয়া সিদ্দিকা বলেন, ওই এলাকায় পানি নিষ্কাশনের ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানকে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্দেশনা প্রদান করা হবে। এ ছাড়াও ওই এলাকায় পরবর্তীতে যেন জলাবদ্ধতা সৃষ্টি না হতে পারে এর জন্য উপজেলা প্রশাসন ও পরিষদের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

এ জাতীয় আরও খবর

১১৩ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হচ্ছে চাষাঢ়া-খাঁনপুর-হাজীগঞ্জ-গোদনাইল-আদমজী ইপিজেড সড়ক কাজ এগিয়ে চলছে

এসিল্যান্ডের হস্তক্ষেপে শিবালয়ের যমুনা ড্রেজার মুক্ত

নারায়ণগঞ্জে বাস চাপায় ইষ্ট ওয়েষ্ট ইউনিভার্সিটির দুই শিক্ষার্থী নিহত : অভিযুক্ত চালক গ্রেপ্তাার

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে মাসোহারা না দেয়ায় নির্যাতন, এএসআই ক্লোজড

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে পুলিশের সোর্স পরিচয়ে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন

নারায়ণগঞ্জে অটোরিক্সা চোর চক্রের ৬ সদস্য গ্রেপ্তার

নারায়ণগঞ্জে মাদকবিরোধী টাস্কফোর্সের অভিযান, গ্রেপ্তার ১৪

সিদ্ধিরগঞ্জে লন্ডন প্রবাসীকে মৃত দেখিয়ে প্রবাসীর বাড়ী দখল

ঘিওরে নবাগত ওসির সাথে সাংবাদিকদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

ঘুমন্ত স্বামীর বিশেষ অঙ্গন কর্তন, স্ত্রী গ্রেপ্তার

‘লাল পতাকা দেখালেও কথা শুনেনি চালক’

ধলেশ্বরী নদী থেকে মাছ ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার