আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

করোনায় মোট মৃত্যুর পরিসংখ্যানে সবচেয়ে ঝুঁকিতে রয়েছেন বয়স্করা

news-image

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় দেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ ৭৪ জন মারা গেছেন, এই নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯ হাজার ৫২১ জনে। দেশে একদিনে সর্বোচ্চ এত জনের মৃত্যুর ঘটনা এটাই প্রথম।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বুলেটিনে দেখা যায়, বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) করোনায় মোট মৃত্যুর অর্ধেকের ষাটের ওপরে। অর্থাৎ মৃত ৭৪ জনের মধ্যে ৪৬ জনেরই বয়স ষাট বছরের বেশি। ১৬ জনের বয়স ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে। বাকিদের বয়স এর চেয়ে কম। তবে ২০ বছরের নিচে কারও মৃত্যু হয়নি।

করোনায় মারা যাওয়াদের বয়সভিত্তিক বিশ্লেষণের এক পরিসংখ্যানে দেখা যায়, মোট মৃত্যুর পরিসংখ্যানে বয়স্করা সবচেয়ে ঝুঁকিতে রয়েছেন। ৯ হাজার ৫২১ জনের মধ্যে ৫ হাজার ৩৪৯ জনই ষাটোর্ধ্ব, যা শতকরা হিসেবে ৫৬ দশমিক ১৮ শতাংশ। ৫১ থেকে ৬০ বছর বয়সী মানুষ মারা গেছেন দুই হাজার ৩৪০ জন, যা শতকরা হিসেবে ২৪ দশমিক ৫৮ শতাংশ। ৪১ থেকে ৫০ বছর বয়সী মানুষ মারা গেছেন এক হাজার ৬৫ জন, যা শতকরা হিসেবে ১১ দশমিক ১৯ শতাংশ।
৩১ থেকে ৪০ বছর বয়সী মানুষ মারা গেছেন ৪৭৩ জন, যা শতকরা হিসেবে ৪ দশমিক ৯৭ শতাংশ। ২১ থেকে ৩০ বছর বয়সী মারা গেছেন ১৮৫ জন, যা শতকরা হিসেবে ১ দশমিক ৯৪ শতাংশ। ১১ থেকে ২০ বছর বয়সী মারা গেছেন ৭০ জন, যা শতকরা হিসেবে ০ দশমিক ৭৪ শতাংশ। ০ থেকে ১০ বছর বয়সী মারা গেছে ৩৯ জন যা শতকরা হিসেবে ০ দশমিক ৪১ শতাংশ।

গত এক সপ্তাহ ধরে সংক্রমণ ও মৃত্যুর আগের সব রেকর্ড ভেঙে যাচ্ছে। বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) দুপুর পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ২০ শতাংশের বেশি, যা এক মাস আগেও ৫ শতাংশের নিচে ছিল। এছাড়াও যারা করোনাভাইরাসে মারা যাচ্ছেন, তাদের মধ্যে পুরুষের সংখ্যাই বেশি। এখন পর্যন্ত দেশে মোট মৃত্যুর মধ্যে ৭ হাজার ১০০ জনই পুরুষ; যা ৭৪ দশমিক ৮৯ শতাংশ।

প্রসঙ্গত, এদিন দেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ ৭৪ জন মারা যাওয়ার পাশাপাশি ২৪ ঘণ্টায় ৬ হাজার ৮৫৪ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে দেশে এখন পর্যন্ত মোট করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬ লাখ ৬৬ হাজার ১৩২। সুস্থ হয়েছেন আরও ৩ হাজার ৩৯১ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ৫ লাখ ৬৫ হাজার ৩০ জন।

উল্লেখ্য, বুধবার (৭ এপ্রিল) দেশে সর্বোচ্চ ৭ হাজার ৬২৬ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয় এবং আক্রান্তদের মধ্যে মারা যান ৬৩ জন।

এ জাতীয় আরও খবর

ডিউটি ফাঁকি দিয়ে চাঁদাবাজিতে তাঁরা

তদন্তকাজে দীর্ঘসূত্রতা -দুদককে আরও গতিশীল হতে হবে

চাহিদামতো ট্রাক দিচ্ছে না বিআরটিসি সরবরাহ সংকটে সারের দাম দ্বিগুণ

রংপুর ও রাজশাহী বিভাগের নৌকার প্রার্থী চূড়ান্ত আ.লীগের মনোনয়ন বোর্ডের যৌথসভা অনুষ্ঠিত

আফ্রিকা থেকে কেউ এলে বোর্ডিং পাস পাবে না: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

রেজিস্ট্রেশনের টাকাসহ অধ্যক্ষ উধাও, বিশেষ ব্যবস্থায় ২৫৮ শিক্ষার্থীর পরীক্ষা

শপথ নেওয়ার আগেই না ফেরার দেশে নবনির্বাচিত মেম্বার

সড়কে প্রাণ হারালেন রাজশাহী বারের সভাপতি মোজাম্মেল

‘প্রতি বছরই করোনার টিকা নিতে হবে’

এক বছরেও বর্ধিত বেতন পাননি সিনিয়র স্টাফ নার্সরা

বাসায় বেড়াতে এসে শিশু চুরি, ১১ দিন পর উদ্ধার

বিদ্যুৎ গ্রাহকদের ঘাড়ে ২২ হাজার মামলা