আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

কিশোরদের নির্যাতনের ঘটনায় আটক সেই চৌকিদার

news-image

নোয়াখালী হাতিয়া উপজেলায় ৫ কিশোরকে কোমরে রশি দিয়ে বেঁধে নির্যাতনের ঘটনায় প্রধান আসামী আমির চৌকিদারকে আটক করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (১৮ মে) সকালে চরকিং ইউনিয়নের শুল্লুকিয়া গ্রাম থেকে তাকে আটক করা হয়। এর আগে একই ঘটনায় আরও ৫ গ্রাম্য মাতব্বরকে আটক করে পুলিশ।

জানা গেছে, জেলেদের মাছ ধারা জাল চুরির অপরাধে ৫ কিশোরকে কোমরে রশি দিয়ে বেঁধে বেধড়ক পিটিয়ে নির্যাতন করেন স্থানীয় এক গ্রাম চৌকিদার। এ সময় নির্যাতনের শিকার কিশোরের মায়ের আর্তনাদ থামাতে পারেনি চৌকিদারকে। পার্শ্ববর্তী এক যুবক গোপনে ভিডিও করে সোশাল মিডিয়ায় ছেড়ে দিলে তা মুহূর্তে ভাইরাল হয়ে যায়। এর পরেই থানা পুলিশ অভিযান দিয়ে ঘটনার সাথে জড়িত ৪ জনকে আটক করে। গত রোববার বিকেলে ঘটনাটি ঘটে নোয়াখালী দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার চরকিং ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডে শুল্লুকিয়া গ্রামে ।

এ বিষয়ে হাতিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল খায়ের জানান, এ ঘটনায় এক কিশোরের বাবা বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। এ মামলায় সালিশে উপস্থিত থাকা ৫ গ্রাম্য মাতাব্বর ও চৌকিদার আমিরকে আসামি করা হয়। পরে অভিযান চালিয়ে সকল আসামিদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার তাদেরকে আদালতে পাঠানো হবে।