আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

কেএসএম প্রাথমিক বিদ্যালয় : সুগার মিল বন্ধে অনিশ্চিত শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যৎ

কুষ্টিয়া চিনিকলের উৎপাদনসহ সার্বিক কার্যক্রম বন্ধে সরকারি নির্দেশনার পর অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে প্রতিষ্ঠানের তত্ত্বাবধানে চলা কেএসএম প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম। এতে হুমকিতে প্রায় ৩০০ শিক্ষার্থীর ভবিষ্যৎ। চাকরি হারানোর শঙ্কায় শিক্ষকসহ সংশ্লিষ্টরা।

কেএসএম প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গোলাম মোস্তফা জানান, প্রায় ৩০ বছরেরও বেশি সময় ধরে ওই বিদ্যালয়ে দায়িত্ব পালন করছেন। কিন্তু হঠাৎ করেই কুষ্টিয়া সুগার মিলের সার্বিক কার্যক্রম বন্ধ হওয়ায় চরম হতাশার মধ্যে দিন কাটছে। তবে নিজের চাকরি হারানোর শঙ্কা চেয়ে ৩০০ শিক্ষার্থীর ভবিষ্যৎ নিয়ে উদ্বিগ্ন তিনি।

কেএসএম প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গোলাম মোস্তফা আরও জানান, পড়ালেখার মান বিবেচনায় বিদ্যালয়ের অবস্থান জেলায় অনেক ভালো। তাই বন্ধের মতো কঠিন সিদ্ধান্ত না নিয়ে সরকারিকরণের মাধ্যমে পাঠদান অব্যাহত রাখা যেতে পারে বলেও মত দেন তিনি। হামিদুল ইসলাম নামের এক অভিভাবক জানান, কোমলমতি শিক্ষার্থীরা তাদের প্রিয় স্কুলের ভবিষ্যৎ খুব একটা উপলব্ধি করতে না পারলেও তারা চাইছে তাদের প্রিয় প্রতিষ্ঠান টিকে থাকুক। অতীতে মতো তাদের স্কুল আঙ্গিনা হয়ে উঠুক প্রাণবন্ত।

কুষ্টিয়া সুগার মিলের মহাব্যবস্থাপক হাবিবুর রহমান বলেন, স্কুলের বিষয়ে এখনও সদর দফতর থেকে কোনো নির্দেশনা আসেনি। তবে নির্দেশনা না পাওয়া পর্যন্ত শিক্ষা কার্যক্রম বহাল থাকবে।

এ জাতীয় আরও খবর