আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

কেন্দুয়ায় ৯১ কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ

news-image

নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলার ১৩টি ইউপিতে ভোট আজ বুধবার। সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ চলবে। নির্বাচনে এসব ইউপির ১১৭টি কেন্দ্রের মধ্যে ৯১টিই ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করেছে প্রশাসন। ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রে বাড়তি নজরদারির পাশাপাশি নির্বাচনকে ঘিরে পর্যাপ্ত নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে বলে প্রশাসন সূত্র জানিয়েছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, উপজেলার যে ১৩টি ইউপিতে নির্বাচন হচ্ছে সেগুলো হলো-আশুজিয়া, দলপা, গড়াডোবা, গন্ডা, সান্দিকোনা, মাসকা, বলাইশিমুল, নওপাড়া, কান্দিউড়া, চিরাং, রোয়াইলবাড়ি আমতলা, পাইকুড়া ও মোজাফরপুর।

এ সব ইউপির মধ্যে ১১৭টি ভোটকেন্দ্রে ভোট গ্রহণ করা হবে। এ উপলক্ষে গতকাল মঙ্গলবার প্রতিটি কেন্দ্রে স্বচ্ছ ব্যালট বাক্সসহ প্রয়োজনীয় নির্বাচনী সরঞ্জাম পাঠানো হয়। তবে ব্যালট পেপার ভোটের দিন সকালে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার দপ্তর জানিয়েছে।

এদিকে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণের লক্ষ্যে ঝুঁকিপূর্ণ ৯১ টিসহ ১১৭টি ভোটকেন্দ্রের প্রতিটিতেই পর্যাপ্ত নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে জেলা পুলিশের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানিয়েছেন। সেই সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ ৯১টি ভোটকেন্দ্রে বাড়তি নজরদারি থাকবে বলেও ওই কর্মকর্তা নিশ্চিত করেন।

এ ব্যাপারে গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে নেত্রকোনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) একেএম মনিরুল ইসলাম বলেন, নির্বাচনের দিন প্রতিটি কেন্দ্রে ও কেন্দ্রের বাইরে পর্যাপ্তসংখ্যক আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য নিয়োজিত থাকবে।

সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে কেন্দ্রভেদে পুলিশ কর্মকর্তা, কনস্টেবল ও আনসারসহ ২০ জন কিংবা এর চেয়েও বেশি সদস্য দায়িত্ব পালন করবেন।

এ ছাড়াও নির্বাচনকে ঘিরে পুলিশের মোবাইল টিম, সাদা পোশাকের পুলিশ, র‍্যাব ও বিজিবি সদস্যও মোতায়েন থাকবে। সেই সঙ্গে থাকবে স্ট্রাইকিং ফোর্স। নির্বাচনে জুডিশিয়াল ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটগণও দায়িত্ব পালন করবেন।

জানা গেছে, ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রগুলোর মধ্যে গন্ডা, চিরাং ও মোজাফরপুর ইউপিতে ৮টি করে ২৪ টি, দল্পা, গড়ডোবা, মাস্কা, বলাইশিমুল, নওপাড়া, কান্দিউড়া, রোয়ায়াইলবাড়ি ও পাইকুড়ায় ৭টি করে ৫৬টি এবং সান্দিকোনা ও আশুজিয়া ইউনিয়নে যথাক্রমে ৬টি ও ৫টি কেন্দ্রই ঝুঁকিপূর্ণ। এ ছাড়া বাকি ২৬টি কেন্দ্রকে সাধারণ হিসেবে ধরা হয়েছে।

কেন্দুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী শাহনেওয়াজ জানান, এক কথায় ঝুঁকিপূর্ণ ও সাধারণসহ প্রতিটি কেন্দ্রেই পর্যাপ্ত নিরাপত্তাব্যবস্থা থাকবে। এ ছাড়া ভোটাররা যাতে সুষ্ঠু ও নির্বিঘ্নে ভোট দিতে পারেন সে জন্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে যা যা করার দরকার সে ব্যবস্থাই নেওয়া হবে। তাই ভোটারদের আতঙ্কিত হওয়ার কোনো কারণ নেই। সেই সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরা যাতে নির্বাচনী আচরণবিধি মেনে চলেন সে বিষয়েও তাদের সতর্ক করা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান জানান, ‘ঝুঁকিপূর্ণ কিংবা সাধারণ প্রতিটি ভোটকেন্দ্রই পর্যাপ্ত নিরাপত্তা বলয়ের মধ্যে থাকবে।

আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও প্রশাসনের সহায়তায় আমরা একটি সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন করতে পারব বলে আশাবাদী।’ তিনি আরও জানান, ব্যালট পেপার কেন্দ্রে যাবে ভোটের দিন (আজ) সকালে। আর ভোটগ্রহণ হবে সকাল ৮টা থেকে বিকেলে ৪টা পর্যন্ত।

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ১৩টি ইউপির মোট ভোটার সংখ্যা ২ লাখ ৩০ হাজার ৬৫২ জন। নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৫১ জন, সাধারণ ওয়ার্ডের সদস্য পদে ৪৪৪ জন ও সংরক্ষিত ওয়ার্ডের নারী সদস্য পদে ১৫২ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এ জাতীয় আরও খবর

বাঁশখালীতে বিদ্যুৎকেন্দ্রে বিস্ফোরণ

মানিকগঞ্জে পদ্মা সেতুর লাইভ অনুষ্ঠানে অস্ত্র নিয়ে মহড়া, সাংবাদিক গ্রেপ্তার

উল্লাসে মেতেছে পদ্মা পাড়ের মানুষ

চার মাস না যেতেই উঠছে ৯ কোটি টাকার সড়কের পিচ

পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষ্যে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর পিঠা উৎসব

নদী ভাঙা মানুষের বিলাপ

সাঁতরে মঞ্চে গিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলল কিশোরী

বঙ্গবন্ধুর শ্রেষ্ঠ উপহার স্বাধীনতা, আর প্রধানমন্ত্রীর শ্রেষ্ঠ উপহার পদ্মা সেতু : পাট ও বস্ত্রমন্ত্রী

সেতুর উদ্বোধনে ফায়ার সার্ভিসের শোভাযাত্রা

‘নতুন ইতিহাস’ রচনার সংকল্পের দিন

কলকাতায় বাংলাদেশ উপ-হাইকমিশনে পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উদযাপন

বনানীতে ভবন থেকে পড়ে প্রকৌশলীর মৃত্যু