আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

কয়েক সেকেন্ডেই তালা খোলে চক্রটি, টার্গেট কর্পোরেট অফিস

news-image

টার্গেট বহুতল ভবনের কর্পোরেট অফিস। গ্রাহক সেজে সাত দিন পর্যবেক্ষণ। তারপর দিনক্ষণ ঠিক করে মিশন। মাত্র কয়েক সেকেন্ডেই যে কোনো ডিজিটাল লক খুলতে পারদর্শী চক্রটি। ঢাকা ও চট্টগ্রামসহ বড় বড় শহরে শতাধিক চুরিতে জড়িত পেশাদার এ চক্রের সাত সদস্যকে গ্রেপ্তারের পর এ তথ্য জানিয়েছে গোয়েন্দা পুলিশ।
রাজধানীর উত্তরার প্যারাডাইস টাওয়ারের সিসি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা যায়, ভবনটির মূল ফটক দিয়ে ঢুকে লিফটে উঠছে দু’জন। অষ্টম তলায় নেমে সিঁড়ি বেয়ে নবম তলায় উঠে যান তারা। এর ঘণ্টা দুয়েক পর ভবনটির একাধিক প্রতিষ্ঠানে চুরি শেষে নিজেদের জামা-কাপড় পরিষ্কার করছেন তিন জন। তারপর অষ্টম তলায় নেমে লিফট ব্যবহার করে নিচে চলে যান তারা।
গ্লোডেন টাচ ইমপোর্টস ইনকরপোরেশনের প্রশাসক মতিউর রহমান শামীম বলেন, টেকনিক্যাল ডিপার্টমেন্ট থেকে ক্যামেরা নিয়ে গিয়েছে, ক্যাশ টাকা নিয়েছে ছয় লাখের মতো।
এরকম আরও কয়েকটি সিসি ক্যামেরার ফুটেজে একই চক্রের সদস্যদের রাজধানীর সুউচ্চ ভবনে চুরি করতে দেখা যায়। ফুটেজ বিশ্লেষণ করে চক্রের সাত সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ।
বহুতল ভবনের কর্পোরেট অফিস তাদের মূল টার্গেট। অন্যের নামে নিবন্ধিত সিম যোগাড় করে দলটি। তারপর সেগুলো ব্যবহার করে নিজেদের মধ্যে যোগাযোগ রাখে। এক সপ্তাহ পর্যবেক্ষণের পর হানা দেয় টার্গেট অফিসে। হেক্সো ব্লেড, রেঞ্জ আর স্ক্রু-ড্রাইভার দিয়ে দশ সেকেন্ডেই খুলে ফেলে যে কোনো ডিজিটাল লক।
ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার (উত্তরা বিভাগ) বদরুজ্জামান জিলু বলেন, প্রতিষ্ঠানে কখনো তারা গ্রাহক সেজে যায়, কখনো তারা সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানের লোক সেজে সব কিছু দেখে আসে। ওই সব অফিসের কয়টি প্রবেশের পথে আছে কয়টি দরজায় লক আছে, অফিসটি কখন বন্ধ হয় এসব বিষয়গুলো তারা খেয়াল রাখে। আনুমানিক ৭ দিন তারা নিবিড় পর্যবেক্ষণে রেখে তারা চুরি কাজে হাত দেয়।
ঢাকা-চট্টগ্রামসহ বড় বড় শহরে কয়েকশো চুরির সঙ্গে জড়িত চক্রটির প্রধান নাসির পলাতক। দলের কেউ গ্রেপ্তার হলে তাদের জামিনের ব্যবস্থা করতে আইনজীবী প্যানেল রয়েছে তার।
ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের উপকমিশনার মাহবুব আলম বলেন, তদন্তধীন ৭টি মামলার কোনো ক্লু পাওয়া যায়নি এর আগে। এরইমধ্যে সেগুলো উদঘাটন হয়েছে। তারাই চুরি করেছে সেটা তারা স্বীকার করেছে। অফিস আদালতে যারা চুরি করে এ সমস্ত তথ্য তাদের কাছ থেকে নেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে।
বহুতল ভবন কেন্দ্রিক চুরি নিয়ন্ত্রণে নাসিরকে গ্রেপ্তারে অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে পুলিশ।