আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

খুলনা প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধু কর্নার উদ্বোধন

news-image

খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুয়েট) ‘বঙ্গবন্ধু কর্নার’ উদ্বোধন করা হয়েছে। আজ বুধবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্টুডেন্ট ওয়েলফেয়ার সেন্টারে বঙ্গবন্ধু কর্নারের উদ্বোধন করেন কুয়েট উপাচার্য কাজী সাজ্জাদ হোসেন।
কুয়েট স্টুডেন্ট ওয়েলফেয়ার সেন্টারের নিচতলায় স্থাপিত বঙ্গবন্ধু কর্নারের প্রবেশপথে স্থাপন করা হয়েছে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ। মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে ‘জনকের ডাকে জাতির মুক্তি’ শিরোনামে মুক্তিযুদ্ধ ও বাংলাদেশের পৃথক তিনটি শিল্পকর্ম করা হয়েছে। করিডরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতির সঙ্গে জীবন ও রাষ্ট্র পরিচালনায় বিভিন্ন উপদেশ তুলে ধরা হয়েছে এবং হাতে আঁকা বঙ্গবন্ধুর তিনটি ছবি রয়েছে। কেন্দ্রের মধ্যে ছোট একটি লাইব্রেরিও রয়েছে। এখানে মোট ২৭৭টি আলোকচিত্রে বঙ্গবন্ধুকে তুলে ধরা হয়েছে।
নবনির্মিত এই বঙ্গবন্ধু কর্নারে রয়েছে দুর্লভ সব আলোকচিত্র। সেখানে সাদাকালো ফ্রেমে আলো-ছায়ার মধ্যে তুলে ধরা হয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। বঙ্গবন্ধুর জন্ম থেকে মৃত্যু, বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক ও ব্যক্তিজীবন, রাষ্ট্রপরিচালনা—সব পর্যায়ের ছবি দিয়ে কেন্দ্রটি সাজানো হয়েছে। এ ছাড়া সাল অনুয়ায়ী বঙ্গবন্ধুর জীবনবৃত্তান্ত ছবির নিচে সংক্ষিপ্ত আকারে তুলে ধরা হয়েছে।

আলোকচিত্রে ফুটে উঠেছে বঙ্গবন্ধুর জন্ম, কৈশোর, কলেজজীবন, ১৯৫৪–এর নির্বাচন থেকে শুরু করে আন্দোলন–সংগ্রাম, দেশগঠন ও ঘাতকের বুলেটে রক্তাক্ত আলোকচিত্র। এ ছাড়া সেখানে স্থান পেয়েছে স্বাধীনতার ঘোষণাপত্রসহ এ–সংক্রান্ত বিভিন্ন দুর্লভ দলিল, দেশি-বিদেশি পত্রিকায় মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন প্রকাশিত সংবাদের ছবি ও আলোকচিত্র। আরও রয়েছে বঙ্গবন্ধুর হাতে লেখা বেশ কিছু চিঠি, মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধুবিষয়ক বিভিন্ন বই। এখানে আলোকচিত্র ও শিল্পীর কারুকাজে তুলে ধরা হয়েছে বঙ্গবন্ধু ও স্বাধীনতার ইতিহাস।

উদ্বোধনের সময় উপাচার্য কাজী সাজ্জাদ হোসেন বলেন, ‘বাংলাদেশকে জানতে হলে আমাদের অবশ্যই বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে জানতে হবে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দৃঢ় নেতৃত্বে আমরা স্বাধীন বাংলাদেশ পেয়েছি, লাল-সবুজের পতাকা পেয়েছি। এই বঙ্গবন্ধু কর্নারের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা–কর্মচারী, শিক্ষার্থীসহ এ অঞ্চলের সবাই বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে সোনার বাংলা বিনির্মাণে ভূমিকা রাখতে সক্ষম হবে।’

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডিন মো. সাইফুল ইসলাম, ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডিন কে এম আজহারুল হাসান, মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডিন মো. গোলাম কাদের এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিকল্পনা ও উন্নয়ন বিভাগের পরিচালক কাজী এ বি এম মহীউদ্দিন।

এ জাতীয় আরও খবর

জনগণের টাকায় আমাদের সংসার চলে : ডিসিদের রাষ্ট্রপতি

সিদ্ধিরগঞ্জে সেনা সদস্য হত্যার ঘটনায় ৩ ছিনতাইকারী গ্রেপ্তার

কুমিল্লায় ৪ ইটভাটার মালিককে ২১ লাখ টাকা জরিমানা

টাঙ্গাইলে তিন ইটভাটা ধ্বংস, ৯ টিকে সাড়ে ২৭ লাখ টাকা জরিমানা

সাড়ে ৬ কোটি টাকা পাচারের চেষ্টা ঢাকার আরএম সোর্সিংয়ের

বহিষ্কার করলেও দল পরিবর্তন করবো না : তৈমূর

নদীতে মাটি কাটায় ট্রাক্টর জ্বালিয়ে দিলেন ইউএনও

পুলিশের বিরুদ্ধে আ.লীগ নেতার বাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ

‘ডিসিরাও উন্নয়ন প্রকল্প তদারকি করবেন’

ফেরি ও ঘাট সংকটে তীব্র যানজট

দুই স্বতন্ত্র প্রার্থীর স্পিডবোট ব্যবসা বন্ধের অভিযোগ

নাসিক নির্বাচন : পুত্রবধূর কাঁধে চড়ে বৃদ্ধার ভোট