আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

টাইমলাইনে পদ্মা সেতু

news-image

অবশেষে স্বপ্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধনের ক্ষণ গণনা শুরু হয়েছে। দেশের সবচেয়ে বড় অবকাঠামো পদ্মা সেতুর উদ্বোধন হতে যাচ্ছে আগামী শনিবার (২৫ জুন)। নানা চড়াই-উৎড়াই পেরিয়ে বহুল প্রতীক্ষিত পদ্মা সেতুর দিয়ে শুরু হতে যাচ্ছে যানবাহন চলাচল।
উদ্বোধনের প্রাক্কালে এক নজরে দেখা নেওয়া যাক পদ্মাসেতুর নানা তথ্য:

প্রকল্পের নাম: পদ্মা সেতু প্রকল্প। ২০০১ সালের ৪ জুলাই মুন্সীগঞ্জের মাওয়া প্রান্তে পদ্মা সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়।
মূল সেতুর দৈর্ঘ্য: মূল সেতুর দৈর্ঘ্য ৬.১৫ কিলোমিটার।
ভায়াডাক্ট: ভায়াডাক্টের দৈর্ঘ্য ৩.৮১ কিলোমিটার।
সংযোগ সড়ক: দুই প্রান্তে সংযোগ সড়ক মোট ১৪ কিলোমিটার।
নদীশাসন: পদ্মা সেতু নির্মাণ করতে গিয়ে দুই পাড়ে ১২ কিলোমিটার পর্যন্ত নদী শাসন করা হয়েছে।
প্রকল্পে কর্মরত শ্রমিকের সংখ্যা: স্বপ্নের এই প্রকল্পে একসঙ্গে সর্বোচ্চ পাঁচ হাজার মানুষ কাজ করেছে।
সেতুর পাইলিংয়ের সংখ্যা: পদ্মা সেতুতে মোট ২৯৪টি পাইলিং রয়েছে।
পাইলিংয়ের সর্বোচ্চ গভীরতা: পদ্মা সেতুর পাইলিংয়ের সর্বোচ্চ গভীরতা ৪১১.৫০ ফুট (১২৫.৪৬ মিটার)।
অন্যান্য সংযোগ: পদ্মা সেতুতে সড়ক ও রেল পথের পাশাপাশি থাকবে গ্যাস ও অপটিক্যাল ফাইবার লাইন।
সেতুর ধরন: পদ্মা সেতু দ্বিতলবিশিষ্ট। সেতুর ওপরের তলা দিয়ে যানবাহন চলাচলের পথ। নিচের তলায় রয়েছে রেলপথ।
সেতুর পিলারের সংখ্যা: পদ্মা সেতুতে রয়েছে মোট ৪২টি পিলার।

এ জাতীয় আরও খবর

পদ্মা সেতু: শিল্পের জন্য প্রস্তুত গোপালগঞ্জ

এখন যানবাহনের অপেক্ষায় ফেরি

ফেরিতে পাঁচ ভাগের এক ভাগে নেমে এলো ছোট গাড়ি

বাঁশখালীতে বিদ্যুৎকেন্দ্রে বিস্ফোরণ

মানিকগঞ্জে পদ্মা সেতুর লাইভ অনুষ্ঠানে অস্ত্র নিয়ে মহড়া, সাংবাদিক গ্রেপ্তার

উল্লাসে মেতেছে পদ্মা পাড়ের মানুষ

চার মাস না যেতেই উঠছে ৯ কোটি টাকার সড়কের পিচ

পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষ্যে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর পিঠা উৎসব

নদী ভাঙা মানুষের বিলাপ

সাঁতরে মঞ্চে গিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলল কিশোরী

বঙ্গবন্ধুর শ্রেষ্ঠ উপহার স্বাধীনতা, আর প্রধানমন্ত্রীর শ্রেষ্ঠ উপহার পদ্মা সেতু : পাট ও বস্ত্রমন্ত্রী

সেতুর উদ্বোধনে ফায়ার সার্ভিসের শোভাযাত্রা