আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের যে ৬ স্পটে যানজটের শঙ্কা

news-image

ঈদযাত্রায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চট্টগ্রাম অংশে (সিটি গেট থেকে মিরসরাই) ছয়টি স্থানে যানজট সৃষ্টির শঙ্কা রয়েছে। হাইওয়ে পুলিশ ও জেলা ট্রাফিক পুলিশের পক্ষ থেকে এ ছয়টি স্থান চিহ্নিত করা হয়েছে। তবে এবার সড়ক ভালো থাকায় ভোগান্তি কম হওয়ার কথা বলছেন সংশ্লিষ্টরা।

ট্রাফিক পুলিষ সূত্রে জানা গেছে, ঈদযাত্রায় যানজট হতে পারে এমন ছয়টি স্পটের মধ্যে রয়েছে ফৌজদারহাট, জোরারগঞ্জ, মিরসরাই, সীতাকুণ্ড, কেডিএস কনটেইনার ডিপো এলাকা, ভাটিয়ারি ও কুমিরা।

সংশ্লিষ্টরা জানান, চট্টগ্রামের নিমতলা বিশ্বরোড দিয়ে বের হয় চট্টগ্রাম বন্দর থেকে কনটেইনারবাহী কাভার্ডভ্যানসহ ভারী যানবাহন। এসব যানবাহন বের হওয়া ও প্রবেশপথে ভাটিয়ারি এলাকায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে যানজটের সৃষ্টি হয়। অপরদিকে বায়েজিদ বোস্তামী থেকে ফৌজদারহাট পর্যন্ত সড়কে যানবাহন প্রবেশ ও বের হওয়ার সময় যানজট সৃষ্টি হয়। এছাড়া সীতাকুণ্ড এলাকায় কেডিএস কনটেইনার ডিপোর সামনে প্রায় সময়ই যানজট লেগে থাকে। ডিপোর ধারণ ক্ষমতার চেয়ে বেশি গাড়ি রাখা এবং সড়কের ওপর গাড়ি পার্কিংয়ের কারণে ঈদযাত্রায় এসব স্থানে যানজট হতে পারে।
এছাড়া মিরসরাই বাজার, ফৌজদারহাট বাজার, জোরারগঞ্জ বাজার এবং কুমিরা এলাকায় যানবাহন সড়কের ওপর পার্কিং করে রাখার কারণে এবং বাজার থাকায় এসব এলাকায় এখনও যানজট হচ্ছে। ঈদযাত্রায় এসব স্থানে যানজটে বুগতে হতে পারে যাত্রীদের।

বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির মহাসচিব মোজাম্মেল হক চৌধুরী বলেন, ‘সড়কে এলোমেলোভাবে গাড়ি রাখাসহ নানা কারণে এবারও ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ঈদযাত্রায় ভোগান্তি পোহাতে হবে। চট্টগ্রামে বায়েজিদ বোস্তামী থেকে ফৌজদারহাট পর্যন্ত নতুন বাইপাস সড়ক দিয়ে যানবাহন প্রবেশ ও বের হওয়ার সময় যানজট সৃষ্টি হবে। কেননা এ সড়কটি বৈজ্ঞানিক উপায়ে করা হয়নি। অপরদিকে কুমিরা-সিটি গেট এলাকায় এখনও যানজট সৃষ্টি হয়। তা সমাধানে এখন থেকে চিন্তা না করলে ঈদযাত্রায় ভয়ঙ্কর পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হবে।’
সীতাকুণ্ড এলাকার বাসিন্দা মো. ফোরকান আবু জানান, ‘ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের বেশ কিছু স্থানে এখনও যানজটের কবলে পড়তে হয়। তারমধ্যে ফৌজদারহাট বাংলাবাজার মোড়, পোর্টলিংক লজিস্টিক, বানুর বাজার বিটিসি গেট, ভাটিয়ারি বাজার, এছাড়া কাসেম জুট মিলের সামনে, বিএমডব্লিউ কনটেইনার টার্মিনাল, কেডিএস কনটেইনার ডিপো, বারবকুণ্ড বিএম এনার্জির সামনে এখনও যানজট লেগে থাকে। এসব স্পটে এখনই নজর না দিলে ঈদযাত্রায় ভোগান্তি বাড়বে।’

চট্টগ্রাম হাইওয়ে পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. ফরহাদ জানান, ‘ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন করতে আমরা সতর্ক আছি। যে সমস্ত স্থানে যানজট সৃষ্টি হতে পারে তা চিহ্নিত করা হয়েছে। এরমধ্যে মিরসরাই, জোরারগঞ্জ, সীতাকুণ্ড কেডিএস কনটেইনার ডিপোর সামনে, ফৌজদারহাট, ভাটিয়ারি ও সিটি গেট এলাকা রয়েছে। এসব স্থানে হাইওয়ে পুলিশ ও জেলা পুলিশ দায়িত্ব পালন করবে। কীভাবে যানজট এড়ানো যায় আমরা তা নিয়ে কাজ শুরু করছি।’

চট্টগ্রাম জেলা ট্রাফিক পুলিশের ইন্সপেক্টর (টিআই) শাহ মো. আরিফুর রহমান বলেন, ‘মিরসরাই থেকে ফৌজদারহাট পর্যন্ত জেলা পুলিশের আওতাধীন এলাকার প্রতিটি বাজারে ট্রাফিক পুলিশ দায়িত্ব পালন করবে। সে সঙ্গে ট্রাফিক পুলিশের মোবাইল টিমও থাকবে। যাতে কোথাও যানজট হলেই সঙ্গে সঙ্গে এই টিম গিয়ে যানজট নিরসন করতে পারে।’

চট্টগ্রাম বারআউলিয়া হাইওয়ে থানার ওসি কাজী নাজমুল হক বলেন, সীতাকুণ্ড বাজার, কেডিএসের কনটেইনার ডিপো, ফৌজদারহাট এলাকায় কিছুটা যানজট হয়। মূলত যানবাহন পার্কিং এবং কনটেইনার ডিপোর অতিরিক্ত গাড়ি সড়কের পাশে পাকিং করার কারণে এ যানজট হয়। তবে আমরা এবার রেকার রাখবো। সড়কের ওপর যানবাহন অবৈধভাবে পার্কিং করা থাকলেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তবে আন্তঃজেলা বাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক কপিল উদ্দিন যাত্রীদের ভোগান্তিমুক্ত যাত্রার আশ্বাস দিয়েছেন। তিনি বলেন, এবার ঢাকা-চট্টগ্রাম সড়কের অবস্থা ভালো। তবে বাজার কেন্দ্রিক কিছুটা যানজট হয়। এসব যানজট এড়ানো গেলে ঈদ যাত্রায় কোনও সমস্যা হবে না।

এ জাতীয় আরও খবর

দৌলতদিয়ায় ৭ ফেরিঘাটের ৪টিই বিকল, যানবাহনের দীর্ঘ সারি

পানির নিচে পন্টুন, ঘাটে যানবাহনের দীর্ঘ সারি

ছাত্রদল করা সন্তানের জনক হলেন থানা ছাত্রলীগের সহসভাপতি

যমুনা নদীতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন

চাঁদপুরের ডিসিকে বদলি, তিন জেলায় নতুন ডিসি

গাফফার চৌধুরী আর নেই

প্রধান শিক্ষিকার বিরুদ্ধে ভূমি দখলের পাঁয়তারার অভিযোগ

কুমিল্লার মানবজমিন প্রতিনিধিসহ সারাদেশের সাংবাদিকদের উপর হামলার প্রতিবাদে সোচ্চার রূপগঞ্জ প্রেসক্লাব ॥ প্রতিবাদ সভা, মানববন্ধন-বিক্ষোভ মিছিল

চাকরির নামে টাকা আত্মসাৎ গ্রেপ্তার ২

মহাসড়কে গাছ ফেলে ডাকাতি করতো তারা, গ্রেফতার ৬

বনের ভেতর সিসা তৈরির কারখানা, হুমকির মুখে পরিবেশ

বাঘাবাড়ী নৌবন্দর খুঁড়িয়ে চলছে