আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

ঢাকা জেলা পরিষদের উদাসিনতায় এলাকাবাসী ও শিক্ষার্থীদের দের্ভোগ চরমে

news-image

সাভার (ঢাকা) প্রতিনিধি : সাভারের খাগান এলাকায় একটি সরকারী রাস্তার নির্মান কাজ নিয়ে জেলা পরিষদের বিরুদ্ধে উদাসিনতার অভিযোগ উঠেছে। প্রায় তিন মাস আগে রাস্তাটি নির্মানের জন্য ঠিকাদারী প্রতিষ্টষ্ঠাকে কার্যাদেশ দেয়া হলেও অদ্যবদি কাজ শুরু করেনি সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। ফলে ওই এলাকায় কয়েকটি বেসরকারী বিশ^বিদ্যালয়ের শিক্ষক এবং হাজার হাজার শিক্ষার্থীসহ এলাকাবাসীদেরকে প্রতিনিয়ত দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। ভুক্তভোগীদের প্রানের দাবি অবিলম্বে সরকারী রাস্তাটির নির্মান কাজ শুরু এবং শেষ করা । এজন্য তারা প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।
সরেজমিনে দেখা যায়, খাগান বিরুলিয়া সড়ক থেকে একটি শাখা সড়ক আশুলিয়া মডেল টাউন হয়ে পাড়াগ্রম, নয়াপড়া, রুস্তমপুর, সাধুপাড়া, দত্তপাড়া, কাকাবর, হুনাটেঙ্গুর সহ কয়েকটি গ্রামরে মানুষ এই সড়ক দিয়ে প্রতিনিয়তই যাতায়াত করে। এই সড়কটি জেলা পরিষদের অর্থায়নে সরকারীভাবে নির্মানের জন্য প্রস্ততি নেয়া হয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় গত তিন মাস আগে রাস্তাটির নির্মানের জন্য তিনটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকে কার্যাদেশ দেয়া হয়। তবে দীর্ঘদিনেও সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানগুলো নির্মান কাজ শুরু করেনি বরং রাস্তাটির বিভিন্ন স্থান থেকে ইট ও মাটি তুলে ফেলায় স্বাভাবিকভাবে চলাচল করাও কষ্টসাধ্য হয়ে পড়েছে।
রাস্তাটি নির্মান কাজের বিষয়ে সংশ্লিষ্ঠ ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের কাছে জানতে চাইলে তারা বলেন, আমরা রাস্তাটি নির্মান কাজের জন্য ঢাকা জেলা পরিষদের কাছ থেকে নিত মাস আগে কার্যাদেশ পেয়েছি। কিন্তু একটি হাউজিং প্রকল্প আগে থেকেই রাস্তাটি ইটের সলিং করেছিলো। হাউজিং কর্র্তৃপক্ষ নিজ দায়িত্বে তাদের পুরাতন ইটগুলো সরিয়ে নিবেন বলে জানিয়েছেন। তাদের ইট সরানো শেষ না হওয়া পর্যন্ত আমরা রাস্তাটির নির্মান কাজে হাত দিতে পারছিনা। ব্যস্ততম এ রাস্তাটি দিয়ে প্রতিদিন হাজার হাজার লোকজন দুর্ভোগ নিয়ে চলাফেরা করলেও মূলত হাউজিং প্রকল্প ও জেলা পরিষদ কর্র্তৃপক্ষের উদাসিনতার কারনেই রাস্তাটি নির্মান কাজের প্রধান বাঁধা হয়ে দাড়িয়েছে।
আশুলিয়া মডেল টাউন এলাকায় ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটির কয়েকজন ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী জানায়, আমরা প্রায় দুই হাজার ছাত্র-ছাত্রী প্রতিদিন এই রাস্তা দিয়ে যাতায়াত করি। দীর্ঘদিন ধরে রাস্তাটির ইট সরানোর নামে খানাখন্দ করে রাখা হয়েছে। এজন্য আমরা দূর্ভোগে পড়ছি। এটি যখন ইটের সলিং ছিলো তখনও রাস্তাটি বৃষ্টির পানিতে তলিয়ে যেতো এবং কাঁদার কারনে আমরা পায়ে হেটে যেতে না পারলেও রিক্সা কিংবা অন্যকোন পরিবহন দিয়ে কোনরকমে চালিয়ে নিতাম। কিন্তু রাস্তাটি সরকারভাবে টেন্ডার হওয়ার পর সড়কটির বিভিন্ন স্থানে ইট উঠিয়ে খানাখন্দ বানিয়ে রেখেছে। যে কারনে আমরা রিক্সাতো দুরের কথা পায়ে হেটেও ক্যাম্পাসে যেতে পারছিনা। অনেক সময় এসব খানা খন্দে পড়ে জামাকাপর নষ্ট হয়ে যায় এবং অনেকেই কাদার গর্তে পরে হাতে পায়ে ও চোট পেয়েছে।
ইট তুলে খানাখন্দ সৃষ্টি এবং জনদুর্ভোগের বিষয়ে জানতে চাইলে হাউজিং প্রকল্পের ব্যবস্থাপক সাইদুর রহমান বলেন, জেলা পরিষদের অর্থায়নে সরকারীভাবে রাস্তাটি নির্মান করা হবে বিধায় আমাদের প্রকল্পের রাস্তার পুরাতন ইট আমরাই নিজ দায়িত্বে উঠিয়ে নিচ্ছি। গত তিন মাস ধরে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান রাস্তাটির কাজ শুরু করবে বলে জানালেও তারা অদ্যবধি কাজ শুরু করেননি। সর্বশেষ শনিবারও জেলা পরিষদের উপ-সহকারী কর্মকর্তা নজরুল ইসলামের রাস্তাটি পরিদর্শন করে কাজ শুরুর কথা ছিলো, কিন্তু তারা বার বার কথা দিয়েও এখন পর্যন্ত কাজ শুরু করেননি। আমরা যতটুকু রাস্তার ইট উঠিয়েছি তারা চাইলে সেখান থেকে কাজ শুরু করতে পারে। কিন্তু তারা ইচ্ছা করেই জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করে রেখেছে।
জানতে চাইলে ঢাকা জেলা পরিষদের প্রকৌশলী আবদুস সামাদ বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই তবে, দু’এক দিনের মধ্যে জেলা পরিষদের পক্ষ থেকে ওই রাস্তাটি পরিদর্শন করা হবে। এবং বিষয়টি পর্যালোচনা করে অতিদ্রæত রাস্তাটি নির্মান করাজের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে জানান তিনি।

এ জাতীয় আরও খবর

কুষ্টিয়ায় ৭৪ জন নতুন করোনা রোগী সনাক্ত, মৃত্যু ২

যৌতুকের টাকার জন্য বিয়ের আসর থেকে চলে গেল বরপক্ষ

বাকেরগঞ্জে বিএনপি নেতার বিরুদ্ধে মাছের ঘের দখলের অভিযোগ

কেরালায় এয়ার ইন্ডিয়ার বিমান বিধ্বস্ত: নিহত ১৬, আহত শতাধিক

মেজর (অব.) সিনহা হত্যা মামলা ওসি প্রদীপসহ সাত পুলিশ সদস্য সাময়িক বরখাস্ত

পল্লবী থানার ভেতর বিস্ফোরণ সন্ত্রাসীরা জঙ্গিদের ভাড়া করা?

জেকেজির দুই হাজার রিপোর্টে গরমিল, দ্রুতই অভিযোগপত্র

সাবেক সচিবের দখলে আস্ত চর

মানিকগঞ্জের শিবালয় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা’র হস্তক্ষেপে আরিচায় লঞ্চে মটরসাইকেল পাড়াপাড় বন্ধ

কেন্দ্রীয় ঔষধাগারের তিন কর্মকর্তাকে কাল জিজ্ঞাসাবাদ করবেদুদক

সোনারগাঁয়ে নদী দখল করে অবৈধ সিসা তৈরির কারখানা

স্বাস্থ্যের ডিজি ও মন্ত্রীকে ঘিরে কৌতূহল!