আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

তিন ধাপে খুলবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

তিন ধাপে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্লাস-পরীক্ষা শুরু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন।
আগামী ১৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে সন্তোষজনক সংখ্যক শিক্ষার্থী টিকার আওতায় এলে অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহে স্নাতক চতুর্থ বর্ষ ও স্নাতকোত্তর পরীক্ষার্থীদের জন্য খুলবে আবাসিক হল। পর্যায়ক্রমে অন্য বর্ষের শিক্ষার্থীদের ক্লাস ও পরীক্ষা শুরু হবে। তবে শিক্ষার্থীরা দ্রুত সময়ের মধ্যে হল খুলে দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন।
কোভিড-১৯ এর কারণে ২০২০ সালের ১৭ মার্চ থেকে বন্ধ হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। কয়েক দফায় বিশ্ববিদ্যালয় খোলার পরিকল্পনা করা হলেও কোভিড সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতির কারণে সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করতে হয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে।
এ বিষয়ে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বৈঠকে বসে প্রভোস্ট স্ট্যান্ডিং কমিটি। তিন ধাপে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম চালুর জন্য পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়।
বুধবার (২৫ আগস্ট) ডিনস কমিটির সভায়ও এ পরিকল্পনা বহাল রাখা হয়।
সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী ১৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে সন্তোষজনক সংখ্যক শিক্ষার্থী টিকার আওতায় এলে অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহে স্নাতক চতুর্থ বর্ষ ও স্নাতকোত্তর শিক্ষার্থীদের জন্য খুলে দেওয়া হবে আবাসিক হলো।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. এ কে এম গোলাম রাব্বানী বলেন, আরও অন্তত দুটি তিনটে সপ্তাহ পেলে আমার আমার ধারণা যে পরিমাণ শিক্ষার্থী টিকা গ্রহণ করেছেন এবং নিবন্ধিত হয়েছেন আর অপেক্ষায় আছেন, আরেকটি অংশ আছেন যারা কোনো প্রক্রিয়ার মধ্যেই নেই। যারা টিকা না নেওয়ার মধ্যে নেই তাদের চিহ্নিত করা হচ্ছে, ব্যক্তিগতভাবে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে।
এক মাসের মধ্যে চতুর্থ বর্ষ ও মাস্টার্সের শিক্ষার্থীরা পরীক্ষা সম্পন্ন করে হল ছাড়বেন। আর নভেম্বরের মাঝামাঝিতে প্রথম -দ্বিতীয় ও তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থীদের জন্য খুলবে হল। চলবে ক্লাস ও পরীক্ষাও বলে জানান ড. একেএম গোলাম রব্বানী।
প্রক্টর আরও বলেন, গুরুত্ব বিবেচনায় আমরা চতুর্থ বর্ষ ও মাস্টার্সের এ দুটোকে আমরা যদি ১৫ তারিখে টিকা কার্যক্রমের ভালো অগ্রগতি হয় এবং করোনা পতনটা অব্যাহত থাকে তাহলে হয়তো আমরা তারিখ ঘোষণা করব কবে আমার শিক্ষার্থীরা হলে উঠবেন।
তবে বারবার সময় না পিছিয়ে দ্রুত আবাসিক হল খুলে ক্লাস শুরুর দাবি শিক্ষার্থীদের।
এক শিক্ষার্থী বলেন, শিক্ষা মন্ত্রণালয় কি সিদ্ধান্ত নেবে সেদিকে তাকিয়ে না থেকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন আমাদের সুরক্ষা নিশ্চিত করে সশীরের শিক্ষা কার্যক্রম শুরু করা উচিত।
আরেক শিক্ষার্থী বলেন, আমরা ঠিকই বাইরে বের হচ্ছি কিন্তু শিক্ষার সঙ্গে সম্পৃক্ত হতে পারছি না। সুরক্ষা নিশ্চিত করে হল খুলে দিয়ে শিক্ষা কার্যক্রম শুরু করা দরকার।
দ্রুত টিকা নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় খোলার সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে সহযোগিতায় শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

এ জাতীয় আরও খবর

১১৩ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হচ্ছে চাষাঢ়া-খাঁনপুর-হাজীগঞ্জ-গোদনাইল-আদমজী ইপিজেড সড়ক কাজ এগিয়ে চলছে

এসিল্যান্ডের হস্তক্ষেপে শিবালয়ের যমুনা ড্রেজার মুক্ত

নারায়ণগঞ্জে বাস চাপায় ইষ্ট ওয়েষ্ট ইউনিভার্সিটির দুই শিক্ষার্থী নিহত : অভিযুক্ত চালক গ্রেপ্তাার

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে মাসোহারা না দেয়ায় নির্যাতন, এএসআই ক্লোজড

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে পুলিশের সোর্স পরিচয়ে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন

নারায়ণগঞ্জে অটোরিক্সা চোর চক্রের ৬ সদস্য গ্রেপ্তার

নারায়ণগঞ্জে মাদকবিরোধী টাস্কফোর্সের অভিযান, গ্রেপ্তার ১৪

সিদ্ধিরগঞ্জে লন্ডন প্রবাসীকে মৃত দেখিয়ে প্রবাসীর বাড়ী দখল

ঘিওরে নবাগত ওসির সাথে সাংবাদিকদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

ঘুমন্ত স্বামীর বিশেষ অঙ্গন কর্তন, স্ত্রী গ্রেপ্তার

‘লাল পতাকা দেখালেও কথা শুনেনি চালক’

ধলেশ্বরী নদী থেকে মাছ ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার