আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

নগরকান্দায় ভুল চিকিৎসায় রোগী মৃত্যুর অভিযোগ

news-image

ফরিদপুরের নগরকান্দায় ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় সুফিয়া বেগম নামে এক রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এ ঘটনা ঘটে।জানা গেছে, উপজেলার পুরাপাড়া ইউনিয়নের গোয়ালদী গ্রামের সৌদি প্রবাসী টিটুল খানের স্ত্রী সুফিয়া বেগমকে (৪২) বৃহস্পতিবার সকালে অসুস্থ অবস্থায় নগরকান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। এ সময় রোগী অচেতন অবস্থায় ছিলেন। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক বিষপান করেছে ভেবে রোগীর পেট ওয়াশ করেন। পরে রোগীকে ওয়ার্ডে নিয়ে ভর্তি করা হয়। সেখানে আনুমানিক দুই ঘণ্টা পর রোগী মারা যান।

সুফিয়া বেগমের ছেলে নবম শ্রেণীর ছাত্র রবিউল ইসলাম জানায়, তার মা উচ্চ রক্তচাপজনিত রোগে ভুগছিলেন। বুধবার রাতে তার প্রেসার বেড়ে যায়। বৃহস্পতিবার ফজরের নামাজ পড়ার পর অসুস্থ হয়ে পড়লে হাসপাতালে নিয়ে যায়। রবিউল ইসলাম আরও জানায়, আমি বারবার বলছি আমার মা বিষ খাননি। আমার কথা বিশ্বাস না করে ডাক্তার আমার মাকে ওয়াশ করে মেরে ফেলেছে।

সুফিয়ার দেবর আরব আলী বলেন, আমার ভাবি কোনো বিষপান করেননি। তিনি উচ্চ রক্তচাপ রোগে ভুগছিলেন। বৃহস্পতিবার সকালে অসুস্থ ভাবিকে নিয়ে নগরকান্দা হাসপাতালে যাই। হাসপাতালে ঢুকতে ভাবি পানি পান করতে চান। আমি পানি নিয়ে ফিরে দেখি আমার ভাবির মুখে পাইপ দিয়ে পেট ওয়াশ করা হচ্ছে। আমি চিল্লাচিল্লি করলে ভাবিকে ওয়ার্ডে ভর্তি করে। কিছুক্ষণ পরই ভাবি মারা যান।

কর্তব্যরত চিকিৎসক পলাশ সাহা বলেন, হাসপাতালে আসার পর রোগী বিষপান করেছে বলে রোগীর লোকজন জানান। ওই তথ্যমতে আমি চিকিৎসা করি। পরে রোগীর অবস্থা অবনতি হওয়ার তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করি।

হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ফরহাদ হোসেন বলেন, এ বিষয়ে কোনো লিখিত অভিযোগ আমরা পাইনি। নগরকান্দা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ মো. সোহেল রানা বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পেয়ে ও তদন্তসাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।