আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

নার্সকে মারধরের অভিযোগে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা কারাগারে

news-image

রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স মোকেনা বেগমকে (৪৩) মারধরের অভিযোগে জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী হাসান শাফিকে (৩২) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (২৫ মে) দুপুরে তাকে আদালতে হাজির করা হলে বিচারক কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। এর আগে স্ত্রীকে মারধরের অভিযোগে সোমবার (২৪ মে) রাতে রংপুর কোতোয়ালি থানায় মামলা করেন আহত নার্সের স্বামী শফিউল ইসলাম। একই দিন রাতে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রংপুর নগরীর ধাপ হাজীপাড়া এলাকার বাসিন্দা রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স মোকেনা বেগমের সঙ্গে জমিজমা নিয়ে প্রতিবেশী মেহেদী হাসান শাফির বিরোধ চলে আসছিল। বাড়ি নির্মাণে ৩ ফুট জায়গা ছেড়ে দেয়ার কথা থাকলেও মেহেদী প্রভাব খাটিয়ে কোনো জায়গা না ছেড়ে মোকেনার বাড়ি ঘেঁষে ভবন নির্মাণ করেন।

সম্প্রতি নির্মিত ভবনের দেয়ালে রঙ করার জন্য প্রতিবেশী মোকেনার বাড়িতে ঢুকতে চাইলে এতে আপত্তি জানান তিনি। ক্ষিপ্ত হয়ে সোমবার (২৪ মে) বিকেলে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফেরার পথে অভিযুক্ত মেহেদী হাসান শাফি তাকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করতে থাকেন। এক পর্যায়ে ইটের আঘাতে মোকেনা বেগমের মুখ থেঁতলে যায়। পরে গুরুতর অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

মোকেনার স্বামী শফিউল বলেন, পূর্বপরিকল্পিতভাবে শাফি ও তার সহযোগীরা সোমবার বিকেল ৫টার দিকে মোকেনার পথরোধ করে এলোপাথাড়ি ইটপাটকেল নিক্ষেপ করেন।

এ বিষয়ে রংপুর মেট্রোপলিটন কোতয়ালী থানার ওসি আব্দুর রশিদ জানান, অভিযোগের ভিত্তিতে আসামি মেহেদী হাসানকে রাতে গ্রেপ্তার করা হয়। মঙ্গলবার (২৫ মে) দুপুরে তাকে আদালতে নেয়া হয়। এ সময় বিচারক আসামির জামিন আবেদন নামঞ্জুর না করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।