আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

নির্বাচনী বিরোধে প্রাণ গেল ১ জনের

news-image

নির্বাচনী বিরোধ ও পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর উপজেলার উজানচর ইউনিয়নের রাধানগর গ্রামে দুই পক্ষের সংঘর্ষে অলেক মিয়া (৫২) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। রোববার রাত ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও অন্তত ১০ জন।

নিহত অলেক মিয়া রাধানগর গ্রামের মৃত খুরশিদ মিয়ার ছেলে। তবে তাৎক্ষনিকভাবে আহতদের নাম পরিচয় জানা যায়নি।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, গ্রাম্য আধিপত্য বিস্তার, নির্বাচনী বিরোধ ও পূর্ব শত্রুতার জের ধরে রাধানগর গ্রামের বর্তমান মেম্বার মাসুদ মিয়া এবং সদ্য নবনির্বাচিত মেম্বার মহসিন মিয়ার মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। এই বিরোধের জের ধরে রোববার রাত ৮টার দিকে দুইপক্ষের লোকজনের মধ্যে প্রথমে কথা কাটাকাটি ও বাকবিতণ্ডা হয়। পরে মেম্বারের সমর্থকেরা দুই দলে বিভক্ত হয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়।

এ সময় বর্তমান মেম্বার মাসুদ এর পক্ষের অলেক মিয়াকে (৫২) পিটিয়ে গুরুতর আহত করা হয়। পরে তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বাঞ্ছারামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

খবর পেয়ে বাঞ্ছারামপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করেন। তবে হত্যাকাণ্ডের ঘটনার খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে থেমে সংঘর্ষ হয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে উজানচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কাজী জাদিদ আল রহমান জনি। তিনি জানান, আমি ঢাকায় অবস্থান করছি। এলাকার পরিস্থিতি শান্ত রাখার জন্যে পুলিশ প্রশাসনের সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইমতিয়াজ আহমেদ জানান, পরবর্তী সংঘর্ষের আশঙ্কায় এলাকায় বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।