আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

নিষেধাজ্ঞা অমান্য করা দূরপাল্লার বাসের বিরুদ্ধে পুলিশের কঠোর অবস্থান

news-image

সরকারি নির্দেশনা না মেনে দূরপাল্লার যেসব বাস চলাচলের চেষ্টা করছে তাদের বিরুদ্ধে পুলিশ কঠোর অবস্থান নিচ্ছে। নিষেধাজ্ঞা অমান্য ও প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টির অভিযোগে গাজীপুরে ৯৭টি বাসের চালক-মালিকের বিরুদ্ধে মামলা এবং ১০টি গাড়ি ডাম্পিং করেছে পুলিশ। রবিবার (১৬ মে) বিকাল থেকে সোমবার সন্ধ্যা পর্যন্ত ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের চন্দ্রা, কোনাবাড়ি, মৌচাক, সফিপুর এবং শ্রীপুর উপজেলার জৈনাবাজার এলাকা থেকে এসব গাড়ি আটক করে মামলা দেওয়া হয়। সংশ্লিষ্ট এলাকার দায়িত্বপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তারা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

কিছু বাস মালিক ও চালক সরকারি নির্দেশ অমান্য করে ঈদের আগের দিন এবং ঈদের পরের দিন দূরপাল্লার যানবাহন চালিয়েছেন বলে স্বীকার করেন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পুলিশের এক সার্জেন্ট। তিনি বলেন, ‘আমরাও কিছুটা নমনীয় ছিলাম। এখন দেখছি, পুলিশের নমনীয়তাকে পরিবহন মালিক ও চালকেরা দুর্বলতা ভেবেছে। সেজন্য কঠোরভাবে মাঠে নেমেছে প্রশাসন।’

গাজীপুর মহানগরের সালনা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর গোলাম ফারুক জানান, সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করায় কালিয়াকৈর, চন্দ্রা, কোনাবাড়ি, মৌচাক, সফিপুরসহ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে দূরপাল্লার ৪৬টি বাস চালক-মালিকের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। গাজীপুর মহানগর এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৪৫টি বাস চালক-মালিকের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। রাস্তায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টির অভিযোগে ১০টি গাড়ি ডাম্পিং করা হয়।

মাওনা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামাল হোসেন জানান, রবিবার সন্ধ্যায় শ্রীপুর উপজেলার মাওনা চৌরাস্তায় দূরপাল্লার যাত্রী নিয়ে চলাচলের চেষ্টা করলে ছয়টি বাসের চালকের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের সহকারী কমিশনার ট্রাফিক (উত্তর) মেহেদী হাসান জানান, সরকারি নির্দেশনা না মেনে দূরপাল্লার যেসব বাস চলাচলের চেষ্টা করছে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। পুলিশের এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।