আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলায় বিয়ের সাত দিনের মাথায় স্বামীকে অচেতন করে এক নববধূ উধাও হয়ে গেছে।

news-image

বুধবার বিকালে এ ঘটনায় বর ও কনের পরিবার পৃথকভাবে চাটখিল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন।

এর আগে মঙ্গলবার রাতে উপজেলা বানসা গ্রামের সফিউল্যা বেপারিবাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

জিডিসূত্রে জানা যায়, শুক্রবার পারিবারিকভাবে উপজেলার বানসা গ্রামের মেয়ের (২১) সঙ্গে একই উপজেলার সাজ্জাত হোসেনের (৩০) বিয়ে হয়।

মঙ্গলবার সাজ্জাত তার স্ত্রীকে নিয়ে শ্বশুরবাড়িতে বেড়াতে যান।
সেখানে নববধূ রাতে সাজ্জাতকে চেতনানাশক ওষুধ খাইয়ে দিয়ে পরিবারের সদস্যদের অগোচরে উধাও হয়ে যান।

এ সময় নববধূ ১০ ভরি স্বর্ণালঙ্কার, ৫০ হাজার টাকা এবং বিদেশি ১৫ হাজার রিয়ালসহ মোট ১০ লাখ ৮০ হাজার টাকার মালামাল নিয়ে যায় বলে স্বামী পক্ষ জানিয়েছে।

ভুক্তভোগীর মা জানান, তিনি বুধবার সকালে সংবাদ পেয়ে সাজ্জাতের শ্বশুরবাড়িতে গিয়ে তার ছেলেকে অজ্ঞান অবস্থায় দেখতে পান। পরে সাজ্জাতকে উদ্ধার করে চাটখিল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

নববধূর বাবা জিডিতে উল্লেখ করেন, তার মেয়েকে বুধবার রাত থেকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। তিনি সম্ভাব্য সব স্থানে খোঁজাখুঁজি করেও তার কোনো সন্ধান পাননি। তাই মেয়ের সন্ধান চেয়ে তিনি থানায় জিডি করেন।

নববধূর বড় বোন রুমি মোবাইল ফোনে জানান, কোথায় বা কার সঙ্গে পালিয়ে গেছে, তা আমাদের জানা নেই।

চাটখিল থানার ওসি আবুল খায়ের জানান, এ ঘটনায় উভয়পক্ষ সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখে আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

এ জাতীয় আরও খবর