আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

প্যানডোরা পেপার্স: বিশ্বের বহু নেতার গোপন সম্পদের তথ্য ফাঁস

news-image

বিশ্বের বহু প্রভাবশালী রাজনৈতিক নেতা ও ধনকুবেরদের গোপন সম্পদ ও লেনদেনের তথ্য ফাঁস হয়েছে। প্যানডোরা পেপার্স নামে একটি নথিতে প্রায় ৩৫ জন বর্তমান ও সাবেক রাজনীতিবিদ এবং বিশ্বের বিভিন্ন দেশের তিন শতাধিক সরকারি কর্মকর্তার নাম রয়েছে – যারা বিভিন্ন বিদেশি কোম্পানির সাথে গোপন লেনদেনে সংশ্লিষ্ট।
গোপন সম্পদ ও লেনদেনের এই তালিকায় রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন, জর্ডানের বাদশাহ আবদুল্লাহ, চেক প্রধানমন্ত্রী আন্দ্রেই বাবিস, আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভ, কেনিয়ার প্রেসিডেন্ট উহুরু কেনিয়াত্তা, সাবেক ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টনি ব্লেয়ার – এমন আরও অনেক নেতার গোপন সম্পদের তথ্য উঠে এসেছে।

এই নথি প্রকাশের মাধ্যমে করস্বর্গ হিসেবে পরিচিত পানামা, দুবাই, মোনাকো, সুইজারল্যান্ড ও ব্রিটিশ ভার্জিনিয়া দ্বীপপুঞ্জের মতো কয়েকটি দেশের অফশোর কোম্পানিগুলোতে গোপনে কারা বিনিয়োগ করেছেন সেই তথ্য প্রকাশিত হয়েছে।

ব্রিটিশ দৈনিক গার্ডিয়ান ও বিবিসিসহ কয়েকটি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম এসব দেশের কয়েকটি কোম্পানির এক কোটি ১৯ লাখ নথি বিশ্লেষণ করে এই তথ্য প্রকাশ করেছে।

বিবিসি প্রকাশিত ওই নথিতে দেখা যায়, মোনাকোতে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের গোপন বিনিয়োগ রয়েছে। এছাড়া জর্ডানের বাদশাহ আবদুল্লাহর ব্রিটেন, যুক্তরাষ্ট্র ও মালিবুকে বাড়ি ও জমিসহ ১০ কোটি ডলারের সম্পত্তি রয়েছে।

আজারবাইজানি প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভ ও তার সহযোগীরা যুক্তরাজ্যে ৫৪ কোটি ডলারেরও বেশি সম্পত্তি লেনদেনের সঙ্গে সম্পৃক্ত বলে তথ্য পাওয়া গেছে।

যুক্তরাজ্যের সাবেক প্রধানমন্ত্রী টনি ব্লেয়ার ও তার স্ত্রী লন্ডনে একটি অফিস কেনার সময় তিন লাখ ১২ হাজার পাউন্ড কর ফাঁকি দিয়েছেন। এই দম্পতি একটি বিদেশি অফশোর কোম্পানি কিনে নেন, যারা ওই ভবনের মালিকানায় ছিল।