আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

বাসায় বেড়াতে এসে শিশু চুরি, ১১ দিন পর উদ্ধার

গাজীপুরের টঙ্গী থেকে পাঁচ মাসের শিশু আয়েশা সিদ্দিকাকে অপহরণের ১১ দিন পর ফরিদপুর থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ সময় অপহরণকারী জোৎস্না আক্তারকে (৩২) গ্রেফতার করা হয়েছে। বুধবার (১ ডিসেম্বর) রাতে ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার মালিগ্রাম গ্রামের আসামির নিজ বাড়ি থেকে শিশুকে উদ্ধার ও অপহরণকারীকে গ্রেফতার করে।
অপহৃত শিশু আয়েশা সিদ্দিকা নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলার বাসাটি গ্রামের পান্না আক্তার ওরফে খুকু মনির মেয়ে এবং অপহরণকারী জোৎস্না আক্তার ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার চন্ডিদাসদী সোনাখোলা গ্রামের উজ্জ্বল হোসেনের স্ত্রী।
গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের টঙ্গী পূর্ব থানার ওসি জাবেদ মাসুদ জানান, টঙ্গী পূর্ব থানার পূর্ব আরিচপুরের বেলতলা মধুমিতা এলাকায় শিশু মেয়ে আয়েশা সিদ্দিকাকে নিয়ে পরিবারে সঙ্গে বসবাস করেন পান্না আক্তার। গত ১৯ নভেম্বর জোৎস্না আক্তার ননদ পরিচয়ে তার বাসায় আসেন এবং দুদিন অবস্থান করেন। পরদিন দিনের কোনও এক সময় সুযোগ বুঝে পান্নার পাঁচ মাসের শিশুকে নিয়ে পালিয়ে যান জ্যোৎস্না। শিশুটিকে কোথাও খুঁজে না পেয়ে ২৪ নভেম্বর টঙ্গী পূর্ব থানায় জিডি করেন মা পান্না।
গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার মোহাম্মদ ইলতুৎমিশ জানান, টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে শিশু আয়েশাকে উদ্ধার ও আসামিকে গ্রেফতার অভিযানে নামেন। পরে পুলিশ ভুক্তভোগীর বাসার এলাকার সিসি ক্যামেরা ফুটেজ ও তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার মালিগ্রাম গ্রামে আসামির অবস্থান নিশ্চিত হয়। বুধবার রাতে পুলিশ সেখানে অভিযান চালিয়ে অপহৃত শিশু আয়েশা সিদ্দিকাকে উদ্ধার এবং জোৎস্নাকে গ্রেফতার করে। এ বিষয়ে থানায় মামলা হয়েছে।