আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

‘বেস্ট অব দ্য বেস্ট’ প্রার্থী নিয়োগ দিচ্ছে পুলিশ: আইজিপি

পুলিশের মহাপরিদর্শক বেনজীর আহমেদ বলেছেন, চাকরি বাজার থেকে পুলিশ ‘বেস্ট অব দ্য বেস্ট’ প্রার্থীদের নিয়োগ দিয়েছে। নিয়োগ প্রক্রিয়ায় পরিবর্তনের কারণেই এটি সম্ভব হয়েছে। সহকারী পুলিশ সুপার নিয়োগেও পরিবর্তন আনা হবে।

আজ শনিবার রাজধানীর একটি হোটেলে বাংলাদেশ পুলিশ এবং টেলিটক বাংলাদেশ লিমিটেডের যৌথ আয়োজনে পরিবর্তিত পদ্ধতিতে বাংলাদেশ পুলিশের ক্যাডেট সাব-ইন্সপেক্টর পদে নিয়োগ কার্যক্রম সম্পর্কিত কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে পুলিশ মহাপরিদর্শক বেনজীর আহমেদ এ কথা বলেন।

মেধার পাশাপাশি এ বছর কনস্টেবল ও সাব–ইন্সপেক্টর নিয়োগে শারীরিকভাবে যোগ্য প্রার্থীদের বিবেচনা করা হয়।
বেনজীর আহমেদ বলেন, ‘পরিবর্তিত নিয়োগ প্রক্রিয়ায় বাংলাদেশ পুলিশে সাব–ইন্সপেক্টর, সার্জেন্ট ও কনস্টেবল নিয়োগের ফলে জব মার্কেট থেকে “বেস্ট অব দ্য বেস্ট” লোক আসবেন। কনস্টেবল পদে জব মার্কেট থেকে “বেস্ট অব দ্য বেস্ট” প্রার্থী নিয়োগে আমরা সক্ষম হয়েছি। আমরা মেধার পাশাপাশি শারীরিকভাবে যোগ্য প্রার্থীদের বাছাই করছি। আগামী এক থেকে দুই বছরের মধ্যে মানুষ এক্ষেত্রে পরিবর্তন দেখবেন।’
পুলিশ মহাপরিদর্শক বলেন, নতুন প্রক্রিয়ায় কনস্টেবল নিয়োগ ‘দুঃসাহসিক’ কাজ ছিল। যাঁরা এই নিয়োগ প্রক্রিয়ায় যুক্ত ছিলেন তাঁরা ইতিহাসের অংশ হয়েছেন বলেও মন্তব্য করেন তিনি। তিনি আরও বলেন, সমাজ ও রাষ্ট্র পরিবর্তনশীল। সময়ের প্রয়োজনে সংগঠনে পরিবর্তন আনতে হয়। যে সংগঠন বা প্রতিষ্ঠান পরিবর্তন হয় না তা মৃত।

প্রায় চল্লিশ বছর পর কনস্টেবল নিয়োগে পরিবর্তন আনা হয়েছে। এজন্য তিনি প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান। সহকারী পুলিশ সুপার পদে নিয়োগের ক্ষেত্রেও পরিবর্তন আনা হবে বলে উল্লেখ করেন পুলিশের মহাপরিদর্শক।

অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব মো. খলিলুর রহমান, টেলিটক বাংলাদেশ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সাহাব উদ্দিন বক্তব্য দেন। স্বাগত বক্তব্য দেন অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক মো. মাজহারুল ইসলাম। সাব–ইন্সপেক্টর নিয়োগ প্রক্রিয়ার সার্বিক দিক তুলে ধরে বক্তব্য দেন সহকারী মহাপরিদর্শক মো. মাহফুজুর রহমান আল-মামুন। অনুষ্ঠানে অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক, ঢাকার পুলিশের বিভিন্ন ইউনিটের প্রধান এবং পুলিশ ও টেলিটকের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।