আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ভোট দেওয়া নিয়ে সংঘর্ষ, ২ সদস্য প্রার্থী আটক

news-image

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার বাসুদেব ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে ভোট দেওয়া নিয়ে দুই সদস্য প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে পুলিশসহ অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন। আজ বুধবার দুপুর ১২টার দিকে ওই ইউপির দতাইসার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটেছে।

এ ঘটনায় ইউপি সদস্য প্রার্থী বাবুল ভূঁইয়া (মোরগ) ও শাহীন মিয়াকে (ফুটবল) আটক করে পুলিশি হেফাজতে রাখা হয়েছে। বাসুদেব ইউপির দায়িত্বে থাকা নবীনগর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোশারফ হুসাইন বিষয়টি প্রথম আলোকে নিশ্চিত করেছেন।
পুলিশ ও প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, আজ সকালে দতাইসার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট দেওয়াকে কেন্দ্র বাবুল ভূঁইয়া ও শাহীন মিয়ার সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। একপর্যায়ে বাসুদেব ইউনিয়নের দতাইসার ও বাসুদেব গ্রামের লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। এ সময় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যসহ অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন। খবর পেয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোশারফ হুসাইন ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

মোশারফ হুসাইন প্রথম আলোকে বলেন, ইটপাটকেলের আঘাতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষার দায়িত্বে থাকা পুলিশ সদস্যসহ দুই পক্ষের বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। দুই সদস্য প্রার্থীকে আটক করে ওই কেন্দ্রে বসিয়ে রাখা হয়েছে। তাঁরা ওই কেন্দ্রে প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা করেছেন।

এদিকে সংঘর্ষের পর থেকে ওই কেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতি কমে গেছে। পঞ্চম ধাপে আজ বাসুদেব ইউপিসহ সদর উপজেলার ১০ ইউপি ও আশুগঞ্জ উপজেলার ৮ ইউপিতে ভোট গ্রহণ চলছে।

এ জাতীয় আরও খবর

জনগণের টাকায় আমাদের সংসার চলে : ডিসিদের রাষ্ট্রপতি

সিদ্ধিরগঞ্জে সেনা সদস্য হত্যার ঘটনায় ৩ ছিনতাইকারী গ্রেপ্তার

কুমিল্লায় ৪ ইটভাটার মালিককে ২১ লাখ টাকা জরিমানা

টাঙ্গাইলে তিন ইটভাটা ধ্বংস, ৯ টিকে সাড়ে ২৭ লাখ টাকা জরিমানা

সাড়ে ৬ কোটি টাকা পাচারের চেষ্টা ঢাকার আরএম সোর্সিংয়ের

বহিষ্কার করলেও দল পরিবর্তন করবো না : তৈমূর

নদীতে মাটি কাটায় ট্রাক্টর জ্বালিয়ে দিলেন ইউএনও

পুলিশের বিরুদ্ধে আ.লীগ নেতার বাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ

‘ডিসিরাও উন্নয়ন প্রকল্প তদারকি করবেন’

ফেরি ও ঘাট সংকটে তীব্র যানজট

দুই স্বতন্ত্র প্রার্থীর স্পিডবোট ব্যবসা বন্ধের অভিযোগ

নাসিক নির্বাচন : পুত্রবধূর কাঁধে চড়ে বৃদ্ধার ভোট