আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

ভোলা-লক্ষ্মীপুর নৌরুটে লঞ্চ ও সি-ট্রাকে কয়েক গুণ বেশি যাত্রী, বাড়তি ভাড়া আাদায়

news-image

পবিত্র ঈদুর ফিতরকে সামনে রেখে ভোলা-লক্ষ্মীপুর নৌ-রুটে বাড়ি ফেরা যাত্রীদের চাপ রেড়েছে। গতকাল শুক্রবারের তুলনায় শনিবার (৩০এপ্রিল) এ রুটে যাত্রীদের চাপ কয়েক গুন বেশি দেখা যায়। যাত্রীর চাপ বৃদ্ধি পাওয়ায় এ রুটে চলাচলকারী সি-ট্রাক ও লঞ্চগুলো অতিরিক্ত যাত্রী নিয়েই চলাচল করছে। যাত্রীদের চাপ বৃদ্ধি পাওয়ার সুযোগে সি-ট্রাক ও লঞ্চ মালিকরা যাত্রীদেরকে জিম্মি করে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করছেন।
যাত্রীরা প্রতিবাদ করলেই তাদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহারের পাশাপাশি হয়রানি করছেন লঞ্চের স্টাফরা।
শনিবার (৩০ এপ্রিল) সকালে ইলিশা ঘাটে গিয়ে দেখা গেছে, লক্ষ্মীপুর থেকে ধারণক্ষমতার কয়েকগুন বেশী যাত্রী নিয়ে লঞ্চ ও সি-ট্রাকগুলো লক্ষ্মীপুর মজুচৌধুরীর ঘাট থেকে ভোলার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসছে। একটি লঞ্চেও তিল ধারণের ঠাই নেই। প্রচণ্ড গরমে গাদাগাদি করেই মানুষ গন্তব্যের উদ্দেশ্যে ছুটে আসছে। ঈদে অতিরিক্ত যাত্রী পরিবহনে নিষেধাজ্ঞা থাকলেও তা মানছে না লঞ্চ ও সি-ট্রাকের মালিকরা।

এর আগে এরুটে ১৮০ টাকা ভাড়া নিলেও যাত্রীর চাপ বেড়ে যাওয়ার সুযোগে লঞ্চ মালিকরা আদায় করছেন ২০০ টাকা করে। বাড়তি ভাড়ার ব্যাপারে প্রতিবাদ করেও কোনো প্রতিকার পাচ্ছেন না যাত্রীরা। আর প্রশাসনও এ ব্যাপারে নিরব ভূমিকা পালন করছেন।

জানা গেছে, ঈদ উপলক্ষে ভোলা-লক্ষ্মীপুর নৌ-রুটে চারটি সি-ট্রাক ও চারটি লঞ্চ চলাচল করছে। এগুলো হলো- আটলান্টিক ক্রুজ, সুকান্ত বাবু, খিজির-৫, খিজির-৮ ও লঞ্চ হলো এমভি পারিজাত, এমভি ফারহান-০, এমভি ফারহান-২, রাজহংস। এর আগে এ রুটে কোনো নির্ধরিত ভাড়া না থাকায় নিজেদের ইচ্ছে মতো এ রুটে ভাড়া আদায় করত লঞ্চ মালিকরা। তাই গত ১৯ এপ্রিল বাংলাদেশ অভ্যন্তরীন নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ) এ রুটে একটি ভাড়ার তালিকা প্রকাশ করে।

এতে উল্লেখ করা হয়, ইলিশা হতে মজুচৌধুরী ঘাটের দূরুত্ব ৩২ কিলোমিটার। আর এ দূরত্বে সরাকারি নিয়ম অনুযায়ী ডেক শ্রেণির বা তৃতীয় শ্রেণির ভাড়া ৭৪ টাকা। এবং দ্বিতীয় শ্রেণির সাধারণ চেয়ারের ভাড়া ডেক শ্রেণির ভাড়ার ১ দশমিক ১০ গুণ ও আপার ক্লাশের চেয়ারে ডেক শ্রেণির বাড়ার দেড় গুণ নির্ধারণ করা হয়। এতে এ রুটে ভাড়া আসে সর্বনিম্ন ৭৪ টাকা ও সর্বোচ্চ ১১১টাকা। কিন্তু সরকারি এ নির্দেশ উপেক্ষা করেই এ রুটে লঞ্চ ও সি-ট্রাক চলাচল করছেন। আর প্রশাসন দেখেও না দেখার ভান করছেন বলে দাবি যাত্রীদের।

মো. আল মমিন নামের একটি যাত্রী অভিযোগ করে বলেন, তিনি মজুচৌধুরী ঘাট থেকে আটলান্টিক ক্রুজ নামের সি-ট্রাকে ইলিশা ঘাটে এসেছেন। তার কাছ থেকে ২০০টাকা নিয়েছে সুপারভাইজার। এমনকি টিকেট কেটে লঞ্চে থাকা কয়েক হাজার যাত্রীদের কাছ থেকেও একইভাবে ২০০টাকা করে আদায় করছেন। ভাড়া বেশি দাবি করায় সুপারভাইজারের সাথে অনেক যাত্রীর বাকবিতণ্ডা হয়েছে। কিন্তু কোনো লাভ হয়নি। ২০০টাকা দিয়েই আসতে হয়েছে।

ঢাকা, চট্টগ্রাম থেকে শনিবার মজুচৌধুরী ঘাট দিয়ে ভোলায় আসা যাত্রীরা জানায়, এ রুটে চলাচল করা সব লঞ্চেই ঈদ উপলক্ষে বাড়তি ভাড়া আদায় করছে। কিন্তু ঘাটে পুলিশ ও প্রশাসনের লোকজন থাকলেও তাদেরকে কিছুই বলছে না।

ভোলার ইলিশা নৌ পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ শাহজালাল বলেন, নৌযানগুলো যাতে অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে যাতায়াত করতে না পারে সে জন্য অভিযান চলছে। এবং অতিরিক্ত ভাড়ার বিষয়ে আমাদের কাছে কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এছাড়াও আমরা বিষয়টি নিয়ে লঞ্চ মালিকদের সাথে বলবো।

বাংলাদেশ অভ্যান্তরীন নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ) ভোলা নৌ-বন্দরের সহকারী পরিচালক মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, ঈদে যাত্রীদের চাপ একটু বেশি। এ ঘাটে কোনো লঞ্চ এখন আর নির্ধারিত সময়ে চলছে না। যাত্রী উঠলেই ছেড়ে যাচ্ছে। তবে অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে যাতে লঞ্চ না চলে সেদিকে আমাদের নজরদারি রয়েছে।

অতিরিক্ত ভাড়ার বিষয়ে তিনি বলেন, নতুন ভাড়ার তালিকা গত বৃহস্পতিবার হাতে পেয়েছি। তালিকাটি পেয়ে আমি আমার লোক দিয়ে লঞ্চ ও সি-ট্রাকের মালিকদের কাছে পাঠিয়েছি। কিন্তু লঞ্চ কর্তৃপক্ষ তালিকাটি রাখলেও সি-ট্রাক কর্তৃপক্ষ তালিকাটি রিসিভ করেনি। তবে সরকারি তালিকার বাইরে ভাড়া আদায়ের কেনো সুযোগ নেই। যদি কেউ অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করে থাকে তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

উল্লেখ্য, ঈদ উপলক্ষে ঢাকা-ভোলা নৌরুটে ৩৫টি ও লক্ষ্মীপুর-ভোলা রুটে ৮টি লঞ্চ-সিট্রাক চলাচল করলেও যাত্রীদের চাপ সামলানো যাচ্ছে না। ভোলার পাঁচ লাখের বেশি মানুষ ঢাকা ও চট্টগ্রামসহ বিভিন্ন জেলায় কাজের প্রয়োজনে বসবাস করেন। ঈদের ছুটিতে তারা আত্মীয়দের সঙ্গে ঈদ উদযাপন করতে গ্রামে চলে আসেন।

এ জাতীয় আরও খবর

দৌলতদিয়ায় ৭ ফেরিঘাটের ৪টিই বিকল, যানবাহনের দীর্ঘ সারি

পানির নিচে পন্টুন, ঘাটে যানবাহনের দীর্ঘ সারি

ছাত্রদল করা সন্তানের জনক হলেন থানা ছাত্রলীগের সহসভাপতি

যমুনা নদীতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন

চাঁদপুরের ডিসিকে বদলি, তিন জেলায় নতুন ডিসি

গাফফার চৌধুরী আর নেই

প্রধান শিক্ষিকার বিরুদ্ধে ভূমি দখলের পাঁয়তারার অভিযোগ

কুমিল্লার মানবজমিন প্রতিনিধিসহ সারাদেশের সাংবাদিকদের উপর হামলার প্রতিবাদে সোচ্চার রূপগঞ্জ প্রেসক্লাব ॥ প্রতিবাদ সভা, মানববন্ধন-বিক্ষোভ মিছিল

চাকরির নামে টাকা আত্মসাৎ গ্রেপ্তার ২

মহাসড়কে গাছ ফেলে ডাকাতি করতো তারা, গ্রেফতার ৬

বনের ভেতর সিসা তৈরির কারখানা, হুমকির মুখে পরিবেশ

বাঘাবাড়ী নৌবন্দর খুঁড়িয়ে চলছে