আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

মানিকগঞ্জে রাজবংশী সম্প্রদায়ের মিলন মেলা অনুষ্ঠিত

news-image

কৃষ্ণ চন্দ্র রাজবংশী ,মানিকগঞ্জ : মানিকগঞ্জ জেলা রাজবংশী সংস্কার পরিষদের উদ্যোগে রাজবংশী
সম্প্রদায়ভুক্ত রাজবংশীদের মিলন মেলা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
শুক্রবার (২২শে জুলাই -২০২২) সকাল দশ ঘটিকার সময় মানিকগঞ্জ পৌরসভার রায়পাড়া পূর্ব দাশড়া শ্রীশ্রী
রাধাকৃষ্ণ জিউ মন্দির প্রাঙ্গণে মানিকগঞ্জ জেলা রাজবংশী সংস্কার পরিষদের সভাপতি শ্রী অনিল কুমার রাজবংশী
সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক তাপস রাজবংশীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের সাবেক উপ- সচিব শ্রী গুরুদাস
রাজবংশী।
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মানিকগঞ্জ আনন্দময়ী কালী বাড়ি মন্দির কমিটির সভাপতি
বীর মুক্তিযোদ্ধা শংকর লাল ঘোষ,মানিকগঞ্জ জেলা হিন্দু মহাজোটের সহ-সভাপতি অধ্যাপক জগদীশ চন্দ্র
মালো,মানিকগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সহ- সাঃ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সুভাষ চন্দ্র রাজবংশী,বীর
মুক্তিযোদ্ধা শ্রী জ্ঞানেন্দ্র রাজবংশী,বাংলাদেশ রাজবংশী ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক শ্রী সুনীল
কুমার রাজবংশী,বন বিভাগের এ্যাসিস্ট্যান্ট কনজারভেটর অব ফরেস্ট শ্রী ব্রজ গোপাল রাজবংশী, মানিকগঞ্জ
জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সহ- সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট দীলিপ কুমার রাজবংশী,শ্রী বেনু গোপাল
রাজবংশী,শ্রীমতি নীলিমা রাজবংশী,দুলাল বিশ্বাস প্রমূখ।
পবিত্র গীতা পাঠের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শুরু হয় আলোচনা সভায় বক্তারা রাজবংশী সম্প্রদায়ের বিভিন্ন বিষয়ে
বিষদ্ বিস্তারিত আলোচনা করেন। অশৌচ বিষয়ে শাস্ত্র অনুযায়ী করা উচিত বলে বক্তারা সহমত পোষন করে
বক্তব্য রাখেন।
অতিথির বক্তব্যে বিশিষ্ট বাম রাজনীতিবিদ শ্রী দুলাল বিশ্বাস রাজবংশী সম্প্রদায়ের মিলন মেলায় বলেন শুধু
ধর্মীয় বিষয়ে সচেতন না হয়ে রাজনীতি বিষয়েও সচেতন হতে হবে।কারণ রাজবংশী সম্প্রদায় খুবই গুরুত্বপূর্ণ।
সকলের সাথে মৎস্য ব্যবসা ক্রেতা – বিক্রেতা বিশেষ করে মানুষের দেহে আমিষের প্রয়োজন হয় আর এটার
যোগান আসে রাজবংশী সম্প্রদায় থেকে।সরকারের আইন ও আছে জাল যার জলা তার এ’বিষয়ে আপনাদের
অধিকার বাস্তবায়নের লক্ষ্যে কাজ করুন।আপনাদের রাজবংশী সম্প্রদায়ের সংস্কার পরিষদের উদ্দেশ্য একদিন
সফল হবেই।
বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট ঢাকা জেলা কমিটির নির্বাহী সভাপতি সাংবাদিক রনজিত কুমার পাল বলেন
আপনাদের রাজবংশী সম্প্রদায়ের মিলন মেলার আয়োজন করার জন্য আয়োজকের ধন্যবাদ ও শুভকামনা
জানিয়ে বলেন বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু সমাজ সংস্কার সমিতির মূল চার নীতি এক ধর্ম,এক বর্ণ,এক সমাজ ও এক
সংস্কার। সে অনুযায়ী ধর্ম এক হলে সকলের ক্ষেত্রে এক নিয়ম থাকা উচিত কিন্তু দেখা যায় অশৌচ পালনের সময়
কোন সম্প্রদায় এগার দিন,কেই তের দিন, কেউ একমাস পালন করে। আমরা আলোচনার মাধ্যমে পনের দিন
পালন করে চলেছি কিন্তু দুটি সম্প্রদায় এখনো এ পথে আসেনি তারা হলো রাজবংশী ও কুমার পাল বা রুদ্র পাল
সম্প্রদায়। আপনারাও শাস্ত্রানুমত অনুযায়ী এগার দিন অশোচ পালনের বিষয়টি সুবিবেচনা রাখুন।
সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী শিল্পী রাজবংশী বলেন এগার দিন অশৌচ পালনের সময় অনেককেই বিরোধিতা করতে

দেখি কিন্তু বিয়ের সময় এরাই নিরবতা পালন করে।যেমন পূর্ব কাল থেকে সাজু বিয়ে ও বাশি বিয়ে দুই দিনে
হতো এখন এক রাতেই দুই বিয়ে হচ্ছে। এ বিষয়ে কারোর আপত্তি দেখা যায় না।কাজেই সব বিষয়ে বিবেচনা করে
আমাদেরকে সিদ্ধান্ত নিয়ে সংস্কার করা উচিত।
রাজবংশী মিলন মেলা অনুষ্ঠানে আহত সকল ভক্তবৃন্দের ভক্তসেবার আয়োজন করেন প্রবাসী রজত শুভ্র ঘোষ ও
সুকৃতি রাজবংশী দম্পতি।

এ জাতীয় আরও খবর

১১৩ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হচ্ছে চাষাঢ়া-খাঁনপুর-হাজীগঞ্জ-গোদনাইল-আদমজী ইপিজেড সড়ক কাজ এগিয়ে চলছে

এসিল্যান্ডের হস্তক্ষেপে শিবালয়ের যমুনা ড্রেজার মুক্ত

নারায়ণগঞ্জে বাস চাপায় ইষ্ট ওয়েষ্ট ইউনিভার্সিটির দুই শিক্ষার্থী নিহত : অভিযুক্ত চালক গ্রেপ্তাার

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে মাসোহারা না দেয়ায় নির্যাতন, এএসআই ক্লোজড

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে পুলিশের সোর্স পরিচয়ে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন

নারায়ণগঞ্জে অটোরিক্সা চোর চক্রের ৬ সদস্য গ্রেপ্তার

নারায়ণগঞ্জে মাদকবিরোধী টাস্কফোর্সের অভিযান, গ্রেপ্তার ১৪

সিদ্ধিরগঞ্জে লন্ডন প্রবাসীকে মৃত দেখিয়ে প্রবাসীর বাড়ী দখল

ঘিওরে নবাগত ওসির সাথে সাংবাদিকদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

ঘুমন্ত স্বামীর বিশেষ অঙ্গন কর্তন, স্ত্রী গ্রেপ্তার

‘লাল পতাকা দেখালেও কথা শুনেনি চালক’

ধলেশ্বরী নদী থেকে মাছ ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার