আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

যাত্রীর চাপ নেই রাজধানীর গণপরিবহনে

news-image

ঈদের ছুটির পর বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান চালু হলেও গণপরিবহনে যাত্রীর চাপ নেই। যাত্রীর অপেক্ষায় দীর্ঘ সময় স্টপেজে দাঁড়িয়ে থাকছে বাস। এ নিয়ে চালক-হেলপারের সঙ্গে বাগবিতণ্ডায় জড়াচ্ছেন যাত্রীরা।

সোমবার (১৭ মে) রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে। বাসচালক ও হেলপাররা বলছেন, ঢাকা এখন অনেকটাই ফাঁকা। এ কারণে অর্ধেক যাত্রীও পাওয়া যাচ্ছে না।
সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে বাস চলছে। কিন্তু সেই অর্ধেক আসন পূরণ করতে বাসগুলোকে দীর্ঘক্ষণ সড়কে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। সড়কে সিএনজি ও ভাড়ায়চালিত মোটরসাইকেলকেও বিভিন্ন জায়গায় দাঁড়িয়ে যাত্রী খুঁজতে দেখা গেছে।

যমুনা ফিউচার পার্কের সামনে কথা হয় রাইদা পরিবহনের চালক রাসেলের সঙ্গে। তিনি বলেন, প্রচণ্ড গরমের মধ্যেও বাস চালাচ্ছি। প্রতি ট্রিপে ছয়-সাতজন লোক নিয়ে যেতে হচ্ছে।

বাড্ডায় নূর এ মক্কা পরিবহনের চালক মিশুক বলেন, ঈদ শেষ হয়েছে। তারপরও মানুষ এখনো গ্রাম থেকে আসেনি। যাত্রী একদম নেই, আজ পুরাই লস।
কারওয়ান বাজারে বিহঙ্গ ও শিকড়সহ আরও কয়েকটি বাসের চালক একই তথ্য জানান। বিকল্প পরিবহনের চালক কামাল আহমেদ বলেন, ঈদের দিন যাত্রী ছিল। এই কয়দিন যাত্রী নেই। সকাল থেকে এক ট্রিপ দিয়েছি। অর্ধেক যাত্রীও পাইনি।

যাত্রাবাড়ীর বাসিন্দা বিহঙ্গ বাসের যাত্রী সোহান আরমান বলেন, একটা কাজে যাত্রাবাড়ী যাব। বাস ফাঁকাই আছে। তবে প্রত্যেক স্টপেজেই ৫ থেকে ১০ মিনিট দাঁড়িয়ে থাকছে।
দুপুরে মিরপুর-১০ নম্বরে যাত্রীর অপেক্ষায় থাকা সিএনজিচালক জামিল বলেন, ঢাকায় মানুষ আসা শুরু করলে আবার যাত্রী বাড়বে। এখন সড়কে যাত্রী কম। অন্যদিন দুপুর পর্যন্ত এক হাজার থেকে ১ হাজার ২০০ টাকার ভাড়া মারা যায়। কিন্তু আজ এখন পর্যন্ত ৪০০ টাকার ভাড়া মারতে পেরেছি।