আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

যে কারণে হঠাৎ বেড়েছে গ্যাসের চাহিদা

news-image

ইন্টারন্যাশনাল এনার্জি এজেন্সি (ইআইএ) সম্প্রতি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে মহামারি পরবর্তী সময়ে বেড়েছে প্রাকৃতিক গ্যাসের বৈশ্বিক বাণিজ্য। এর সঙ্গে তাল মিলিয়ে রপ্তানি বাজারে গ্যাসের উত্তোলন বেড়েছে বহুগুণ। মহামারি শেষে আবার খুলতে শুরু করেছে কল-কারখানা, শুরু হয়েছে কাজকর্ম। এর ফলশ্রুতিতেই গ্যাসের চাহিদা বৃদ্ধি পেয়েছে। তার সঙ্গে সামাল রাখতে গিয়ে বৃদ্ধি পেয়েছে গ্যাসের উত্তলোন এবং আমদানি-রপ্তানিও।
ইআইএ’র সবশেষ প্রতিবেদনে বলা হয়, উন্নত দেশ বিশেষ করে অর্থনৈতিক সহযোগিতা ও উন্নয়ন সংস্থাভুক্ত (ওইসিডি) দেশগুলোতে মে মাসে প্রাকৃতিক গ্যাসের ব্যবহার গত বছরের একই সময়ের তুলনায় ৭ দশমিক ৪ শতাংশ বৃদ্ধি পায়। ব্যবহারের পরিমাণ দাঁড়ায় ১২ কোটি ৫৯ লাখ ঘনফুটে।

গত বছর করোনা মহামারির প্রাদুর্ভাবে প্রাকৃতিক গ্যাসের চাহিদায় টান পড়ে। এ সময় পণ্যটির চাহিদা বাড়ার গতি ছিল খুবই মন্থর। তবে চলতি বছর বিশ্ব অর্থনীতি পুনরুদ্ধার হতে শুরু করায় প্রাকৃতিক গ্যাসের চাহিদা বাড়তে থাকে। বিশ্বজুড়ে উষ্ণ আবহাওয়া চাহিদা বাড়াতে প্রভাবকের ভূমিকা পালন করছে। বিশেষ করে দক্ষিণ আমেরিকার দেশগুলোতে ভয়াবহ খরার কারণে প্রাকৃতিক গ্যাসের চাহিদা রেকর্ড পরিমাণ বেড়েছে।

আইইএ জানায়, চলতি বছরের শুরু থেকে মে মাস পর্যন্ত প্রাকৃতিক গ্যাসের ব্যবহার ৪ দশমিক ৬ শতাংশ বেড়েছে। রপ্তানিও একই হারে বেড়েছে। ইআইএর গবেষকরা বলেন, মে মাসে ওইসিডিভুক্ত দেশগুলোর প্রাকৃতিক গ্যাস রপ্তানি গত বছরের একই সময়ের তুলনায় ৩ দশমিক ৭ শতাংশ বেড়েছে। এ সময় রপ্তানির পরিমাণ দাঁড়ায় ৬ কোটি ৫০ লাখ ঘনফুটে। রপ্তানি বৃদ্ধিতে প্রধান ভূমিকা রেখেছে যুক্তরাষ্ট্র। ওইসিডিভুক্ত আমেরিকান অঞ্চলে এক বছরের ব্যবধানে প্রাকৃতিক গ্যাস রপ্তানি বেড়েছে ৩৪ দশমিক ৬ শতাংশ।

চলতি বছরের প্রথম পাঁচ মাসে ওইসিডিভুক্ত দেশগুলোতে প্রাকৃতিক গ্যাস রপ্তানি বেড়েছে ১ দশমিক ৩ শতাংশ। তবে পাইপলাইনের মধ্য দিয়ে রপ্তানি ২ শতাংশ হ্রাস পেয়েছে। এদিকে একই সময়ে তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস রপ্তানি বেড়েছে ২৩ দশমিক ১ শতাংশ।

ইআইএ জানায়, রপ্তানির পাশাপাশি আমদানিও লক্ষণীয় মাত্রায় বেড়েছে। ওইসিডিভুক্ত অঞ্চলে এক বছরের ব্যবধানে প্রাকৃতিক গ্যাস আমদানি ৫ দশমিক ৩ শতাংশ বেড়ে ৮ কোটি ৫৫ লাখ ঘনফুটে উন্নীত হয়েছে। চলতি বছরের শুরু থেকে মে পর্যন্ত আমদানি বেড়েছে ৪ দশমিক ২ শতাংশ।
ওইসিডির সদস্য দেশগুলোতে মে মাসে ১২ কোটি ৮৩ লাখ ঘনফুট প্রাকৃতিক গ্যাস উত্তোলন হয়েছে। গত বছরের একই সময়ের তুলনায় উত্তোলন বেড়েছে ১ দশমিক ২ শতাংশ। এর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের উত্তোলন ৫ দশমিক ২ শতাংশ বাড়লেও একই হারে কমেছে যুক্তরাজ্য ও অস্ট্রেলিয়ার উত্তোলন।

এদিকে মে মাসে উত্তোলন বাড়লেও চলতি বছরের প্রথম পাঁচ মাসে উত্তোলন ছিল নিম্নমুখী। এ সময় ওইসিডি দেশগুলোতে প্রাকৃতিক গ্যাস উত্তোলন গত বছরের একই সময়ের তুলনায় ২ দশমিক ৯ শতাংশ হ্রাস পায়।

এ জাতীয় আরও খবর

শেখ রাসেলের জন্মদিনে ৫৮ কেজি ওজনের কেক কাটলেন মেয়র জাহাঙ্গীর

বিনা ভোটে নির্বাচিত হচ্ছেন ১৮ চেয়ারম্যান

‘প্রশাসনে বাংলাদেশি যেমন আছে, অসংখ্য পাকিস্তানিও আছে’

সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে জাতিসংঘের আহ্বান

শিশু শ্রমে নির্মাণ হচ্ছে আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর

পীরগঞ্জে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় মতবিনিময়

বিএনপি-জামায়াত বা তৃতীয় শক্তির জড়িত থাকার সম্ভাবনা উড়িয়ে দিচ্ছি না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

পীরগঞ্জে জেলে পল্লিতে হামলার প্রতিবাদে দিনাজপুরে ছাত্রলীগের বিক্ষোভ

উপকূলে ৩নং সতর্ক সংকেত, দক্ষিণাঞ্চলে ভারী বর্ষণের সম্ভাবনা

‘শেখ রাসেল স্বর্ণ পদক’ বিতরণ করলেন প্রধানমন্ত্রী

কোন শিশুকে যেন রাসেলের ভাগ্যবরণ করতে না হয়: প্রধানমন্ত্রী

ফতুল্লায় মিশুক চালককে হত্যার দুই ঘাতক গ্রেপ্তার