আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

রাজশাহীতে ছাত্রলীগের কনসার্টে পুলিশের লাঠিচার্জ

news-image

ছাত্রলীগের ৭৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপনের লক্ষ্যে রাজশাহী কলেজ মাঠে কনসার্টের আয়োজন করে রাজশাহী মহানগর ছাত্রলীগ। এতে নেতাকর্মীসহ রাজশাহী ও আশপাশের এলাকার প্রায় দশ হাজার মানুষের সমাগম হয়। মানুষের ভিড় ঠেকাতে পুলিশ কলেজের প্রধান ফটক বন্ধ করে দেন।
এসময় অনেকে প্রাচীর টপকে ভেতরে প্রবেশের চেষ্টা করে এবং বাইরে উত্তেজনা তৈরি হয়। পরে বাধ্য হয়ে পুলিশ লাঠিচার্জ করে। মঙ্গলবার (৪ জানুয়ারি) রাত ৯টার দিকে কলেজের মূল প্রবেশদ্বারে এই ঘটনা ঘটে।

কনসার্টে কর্তব্যরত এক পুলিশ সদস্য জানান, কনসার্টকে কেন্দ্র করে রাজশাহী কলেজে উপচেপড়া ভিড়। মাঠে তিল ধারণের জায়গা নেই। তরুণ ও যুবকরা কেউ ছাদে, কেউ গাছে আবার অনেকে গেটের প্রাচীর টপকে ভেতরে প্রবেশ করছে। ভিড় সামাল দিতে গেট বন্ধ করে দেওয়া হয়। গেট বন্ধ করায় বাইরে উত্তেজনা ও বাজে পরিস্থিতি তৈরি হলে পুলিশের পক্ষ থেকে পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার জন্য লাঠিচার্জ করা হয়।

ওই পুলিশ সদস্য বলেন, পরিস্থিতি যেন স্বাভাবিক থাকে এজন্য পুলিশ কমিশনারও ঘটনাস্থলে আসেন এবং বর্তমানে পরিস্থিতি কিছুটা নিয়ন্ত্রণে এসেছে। এই ঘটনায় কেউ আহত হয়নি বলে দাবি তার।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে রাজশাহী মহানগর ছাত্রলীগের আয়োজনে কলেজ মাঠের কনসার্টে স্থানীয় শিল্পীসহ ‘শিরোনামহীন ব্যান্ড’কে আনা হয়। কনসার্টকে কেন্দ্র করে রাজশাহী কলেজে সন্ধ্যার পর থেকে নগরীর বিভিন্ন স্থান থেকে মানুষ আসতে থাকে।
এর আগে বিকেলে এই মঞ্চে আ’লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও রাসিক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন ও ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির বন ও পরিবেশ-বিষয়ক সম্পাদক ড. আনিকা ফারিহা জামান অর্ণা কেক কেটে ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন করেন। এসময় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী নিয়ে প্রধান অতিথি এবং রাজশাহী মহানগর শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ অন্যান্য নেতারা শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন।

এ বিষয়ে মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ডা. সিরাজুম মুবিন সবুজ জানান, ছাত্রলীগের ৭৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে দিনব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হয়। তারই অংশ হিসেবে সভা-সমাবেশ, আনন্দ মিছিল করা হয়েছে। সর্বশেষ নেতাকর্মীদের চিত্তবিনোদনের জন্য কনসার্টের আয়োজন করা হয়। ‘শিরোনামহীন ব্যান্ড’ শিল্পীরা রাত সাড়ে ৯টার পরে স্টেজে ওঠেন।

বিশৃঙ্খলার বিষয়ে তিনি বলেন, দেশের স্বনামধন্য এই ব্যান্ড তারকাদের গান শুনতে কলেজের গেটের বাইরে কিছু দর্শক-শ্রোতা প্রাচীর টপকে ঢোকার চেষ্টা করে। এতে পুলিশ বাধা দেয় ও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে এ নিয়ে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি বলে দাবি করেন এই নেতা।

উপচেপড়া ভিড় ও লাঠিচার্জের বিষয়ে জানতে চাইলে বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নির্বারণ চন্দ্র বর্মণ বলেন, কনসার্টকে কেন্দ্র করে কলেজ মাঠে হাজার হাজার মানুষ এসেছে। দেশের স্বনামধন্য ব্যান্ড ‘শিরোনামহীন’র জন্য এই ভিড়। অতিরিক্ত ভিড়ে যেন কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সেজন্য প্রাচীর টপকে আসা যুবকদের বাধা দেওয়া হয়েছে।