আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

র‌্যাবের গুলিতে পা হারানো সেই লিমন আজ বিয়ে করছেন

news-image

র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) গুলিতে পা হারানো সেই লিমন হোসেন আজ বিয়ে করছেন। পাত্রী যশোরের অভয়নগর উপজেলার নওয়াপাড়া পৌরসভার সরখোলা গ্রামের বাসিন্দা রাবেয়া বশরী। তার বাবার নাম টিটু মোল্লা ও মায়ের নাম জ্যোৎস্না বেগম।

শুক্রবার সকালে বরপক্ষ কনের বাড়ির উদ্দেশে যাত্রা শুরু করেছে বলে জানা গেছে।

প্রসঙ্গত ২০১১ সালের ২৩ মার্চ বিকালে ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার জমাদ্দারহাটে র‌্যাবের অভিযানের সময় লিমন হোসেন গুলিবিদ্ধ হন।

তিনি জানান, র‌্যাব সদস্যরা তাকে ধরে নিয়ে পায়ে গুলি করেন। এর কয়েক দিন পর ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালের চিকিৎসকরা তার বাঁ পা কেটে ফেলতে বাধ্য হন।

উচ্চমাধ্যমিক (এইচএসসি) পরীক্ষার মাত্র ১২ দিন আগে এ ঘটনা ঘটে। তখন লিমনের বয়স ছিল ১৬ বছর। সে বছর আর পরীক্ষা দেওয়া হয়নি।

তবে দমে যাননি দরিদ্র পরিবারের সন্তান মেধাবী লিমন। চিকিৎসাধীন পড়াশোনা করে পরের বছর পিরোজপুরের কাউখালী উপজেলার কাঁঠালিয়া পিজিএস বহুমুখী স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে জিপিএ-৪ পান তিনি। এর পর ভর্তি হন সাভারের গণবিশ্ববিদ্যালয়ে।

গণবিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগ থেকে ২০১৮ সালে স্নাতক (সম্মান) সম্পন্ন করেন। এর পর কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগ থেকে স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেন।

২০২০ সালের ১২ ফেব্রুয়ারি গণবিশ্ববিদ্যালয়ে একই বিভাগে শিক্ষা সহকারী হিসেবে যুক্ত হন। সর্বশেষ ২০২০ সালের ১ আগস্ট প্রভাষক হিসেবে পদায়ন হয় তার।

এ জাতীয় আরও খবর