আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

‘লকডাউন মুক্ত’ বৃষ্টিস্নাত ঈদ

news-image

ঈদের দিন সারা দেশে বৃষ্টি হওয়ার পূর্বাভাস আগেই দিয়েছিল আবহাওয়া অধিদপ্তর। এরই ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার ভোর থেকে দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টি শুরু হয়।

করোনা মহামারির কারণে দীর্ঘ দুই বছর একরকম ‘ঘরবন্দি’ অবস্থায় কেটেছে দেশবাসীর ঈদ। ঈদের নামাজ কিংবা ঘোরাঘুরি দূরে থাক, এক বাড়িতে থেকেও একসঙ্গে ঈদ উপযাপন করতে পারেননি অনেকেই।

দুই বছর পর করোনার বিধিমুক্ত ঈদ উৎসব ফিরেছে দেশে; এরই মধ্যে ঈদের নামাজও শেষ হয়েছে কোথাও কোথাও। তবে ঈদ উদযাপনে বিঘ্ন ঘটানো শুরু করেছে কালবৈশাখী।

সকাল থেকে নগরীর প্রায় প্রতিটি এলাকাতেই বৃষ্টির খবর পাওয়া গেছে। বৃষ্টি হয়েছে দেশের বিভিন্ন জেলাতেও। কালবৈশাখীর প্রভাবে অনেক জায়গায় ঈদের নামাজে বিঘ্ন ঘটেছে। ঈদগাহের পরিবর্তে নামাজ পড়তে হয়েছে মসজিদে।

মঙ্গলবার সকাল সাতটার আগে থেকেই রাজধানীর আকাশে মেঘের আনাগোনা দেখা যায়। নয়টার পর থেকে রাজধানীর বেশিরভাগ জায়গায় বৃষ্টি শুরু হয়।

রাজধানী ছাড়া দেশের বিভিন্ন স্থানে ঈদের নামাজে বাগড়া দিয়েছে বৃষ্টি। রাজশাহী, বগুড়া, খুলনা বিভাগের অনেক জায়গায় ভোর থেকেই বৃষ্টির কারণে মুসল্লিরা ঈদগাহে যেতে পারেননি।

প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর।

ময়মনসিংহ: মুষলধারে বৃষ্টির মধ্যে ময়মনসিংহের আঞ্জুমান ঈদগাহ মাঠে ঈদুল ফিতরের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকাল আটটায় ঈদের প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হয় এবং দ্বিতীয় জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে সকাল পৌনে নয়টায়। এতে ইমামতি করেন কেন্দ্রীয় আঞ্জুমান ঈদগাহ মসজিদের পেশ ইমাম মাওলানা আব্দুল্লাহ আল মামুন।

কিশোরগঞ্জ: বৈরী আবহাওয়ার মধ্যেই কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়ায় ঈদ জামাত অংশ নিয়েছেন মুসল্লিরা। মঙ্গলবার সকাল ১০টায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়। প্রায় ৩ লাখ মুসল্লির সমাগম হয়েছে ঈদের জামাতে। করোনা মহামারিতে গত ২ বছর ঈদের জামাত না হওয়ায় এবার মুসল্লিদের ঢল নেমেছে। নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়।

বগুড়া: বগুড়ায় করোনাকাল দু’বছর পর ঈদগাহ্ মাঠে পবিত্র ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায়ের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হলেও শেষ পর্যন্ত বৃষ্টি বাগড়া দেওয়ায় মুসল্লিরা মাঠে যেতে পারেননি। মঙ্গলবার ভোর থেকে বৃষ্টি ও বজ্রসহ বৃষ্টি হওয়ায় স্থানীয় মসজিদগুলোতে নামাজ আদায় করতে হয়েছে। এতে মুসুল্লিদের মাঝে আক্ষেপ দেখা দেয়।

বানিয়াচং: হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলার সর্বত্র বৃষ্টিস্নাত ঈদ জামাতে আদায় করেছেন মুসল্লিরা। পবিত্র ঈদুল ফিতরের দিন সকাল থেকে গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি হচ্ছিল। কেন্দ্রীয় শাহী ঈদগাহ ময়দানে সকাল সাড়ে ৮ টায় নামাজের সময় নির্ধারিত হয়। কিন্তু সকাল সাড়ে ৭ টা থেকে ৮ টা পর্যন্ত এক পশলা বৃষ্টি মুসল্লিদের ঈদের নামাজ পড়া অনিশ্চিত হয়ে পরে। কিন্ত ৮ টা ১৫ মিনিটে বৃষ্টি থেমে যায়। এসুযোগে সবাই তড়িঘড়ি করে ঈদগাহে পৌঁছান।

নামাজ শুরু হতেই মুষলধারে বৃষ্টি শুরু হয়। পুরো বৃষ্টিতে ভিজে সবাই টুইটুম্বুর। তবু সবাই এগাগ্রচিত্তে বৃষ্টিস্নাত হয়ে নামাজ শেষ করেন। নামাজের আগে ইমাম তার বয়ানে বলেন, বৃষ্টি হলো রহমতের। নামাজের সময় বৃষ্টি হলে মনে করবেন আল্লাহর পক্ষ থেকে রহমতের বৃষ্টি পড়ে সকলকে ধুয়ে পাপমুক্ত করবেন।

ভেড়ামারা (কুষ্টিয়া): কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় বিভিন্ন স্থানে ঈদুল ফিতরের নামাজ অনুষ্ঠিত হয়েছে। তবে বৃষ্টির কারণে জেলার অনেক স্থানে ঈদগাঁর ময়দানের পরিবর্তে মসজিদে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার ভোর থেকে জেলার বিভিন্ন স্থানে ঝড়- বৃষ্টি হয়। ফলে বৃষ্টির কারণে পূর্বনির্ধারিত অনেক ঈদগাঁ ময়দানগুলোয় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়নি।

এ জাতীয় আরও খবর

দৌলতদিয়ায় ৭ ফেরিঘাটের ৪টিই বিকল, যানবাহনের দীর্ঘ সারি

পানির নিচে পন্টুন, ঘাটে যানবাহনের দীর্ঘ সারি

ছাত্রদল করা সন্তানের জনক হলেন থানা ছাত্রলীগের সহসভাপতি

যমুনা নদীতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন

চাঁদপুরের ডিসিকে বদলি, তিন জেলায় নতুন ডিসি

গাফফার চৌধুরী আর নেই

প্রধান শিক্ষিকার বিরুদ্ধে ভূমি দখলের পাঁয়তারার অভিযোগ

কুমিল্লার মানবজমিন প্রতিনিধিসহ সারাদেশের সাংবাদিকদের উপর হামলার প্রতিবাদে সোচ্চার রূপগঞ্জ প্রেসক্লাব ॥ প্রতিবাদ সভা, মানববন্ধন-বিক্ষোভ মিছিল

চাকরির নামে টাকা আত্মসাৎ গ্রেপ্তার ২

মহাসড়কে গাছ ফেলে ডাকাতি করতো তারা, গ্রেফতার ৬

বনের ভেতর সিসা তৈরির কারখানা, হুমকির মুখে পরিবেশ

বাঘাবাড়ী নৌবন্দর খুঁড়িয়ে চলছে