আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

সাটুরিয়ায় ইমামের বিরুদ্ধে ছাত্রীর শ্লীলতাহানি চেষ্টার অভিযোগ

news-image

মা‌নিকগ‌ঞ্জের সাটুরিয়া উপ‌জেলায় মক্তব পড়ুয়া এক ছাত্রীকে শ্লীলতাহানি চেষ্টা করার অভিযোগ উঠেছে ইমামের বিরুদ্ধে।

বুধবার (২৫ আগস্ট) সকালে উপজেলার ফুকুরহা‌টি ইউ‌নিয়‌নের ভাশিয়ালী কৃষ্টপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

শ্লীলতাহানি চেষ্টার শিকার হওয়া মক্তবছাত্রী ওই গ্রা‌মের এক দিনমজু‌রের মেয়ে এবং স্থানীয় এক‌টি সরকা‌রি প্রাথ‌মিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণির ছাত্রী।
স্থানীয় ইউপি সদস্য ও সমাজের মাতাব্বরা সকা‌লে এলাকায় বিচার ব‌সি‌য়ে এ ঘটনা ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করেছে। এ ঘটনা জানাজা‌নি হওয়ার পর এলাকাবাসীর মাঝে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে।

এ বিষয়ে মক্তব ছাত্রী বলেন, বুধবার সকালে উপজেলার কৃষ্টপুর মসজিদের ইমাম মাওলানা মো. মোকাব্বের হোসেনের কাছে সে সহ আ‌রও ক‌য়েকজন আরবি শিখতে যায়। হুজু‌রের থাকার ঘর ঝাড়ু দেওয়ার নামে তা‌কে ও আ‌রেকজন‌কে থাক‌তে ব‌লে বাকি সবাইকে ছুটি দেয় ইমাম।

এরপর অপরজন‌কে হুজু‌রের খাবা‌রের বা‌টি ধোয়ার জন্য বা‌হি‌রে পা‌ঠিয়ে তা‌কে ঘর ঝাড়ু দি‌তে ব‌লে। সে টে‌বি‌লের নি‌চে থে‌কে ঝাড়ু‌ বের কর‌তে গে‌লে ইমাম দরজা বন্ধ করে তার হাত ধরে বলে এখন ঝাড়ু দি‌তে হ‌বে না প‌রে দিস ব‌লে বিছানার উপর বসতে ব‌লে। এ সময় শিক্ষাথী ভ‌য়ে ওরে বাবা বলে দৌড়ে পালিয়ে যায়। বাড়িতে গিয়ে পরিবারের কাছে ঘটনা জানায়।

প‌রে এলাকায় ঘটনা জানাজা‌নি হ‌লে স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুর রাজ্জাক, মসজিদ কমিটির সভাপতি মো.ফজলুর রহমান ও সহ-সভাপতি আবুল হাসেমসহ এলাকার মাতাব্বরা বিচার ব‌সি‌য়ে উল্টো শিক্ষার্থী ও তার পরিবারকে গালমন্দ করে এ কথা কাউকে না জানানোর জন্য হুমকি দেয়।

কান্নাজরিত কণ্ঠে শিক্ষার্থী বলেন, এর আগেও এই হুজুর আমার সা‌থে এ রকম ব্যবহার ক‌রে‌ছিল। প‌রে আ‌মি মক্ত‌বে যাওয়া বন্ধ ক‌রে দেই। প‌রে বাবা-মা বকা‌ দেওয়ায় পুনরায় মক্ত‌বে যাই। বিচা‌রে আমাকে কোন কথা বলতে না দি‌য়ে বরং আমাকে দিয়ে মাফ চাইয়ে বিচার শেষ করে দেন।

কৃষ্টপুর মসজিদ কমিটির সভাপতি মো.ফজলুর রহমান মোবাই‌লে জানায়, মক্ত‌বে পড়তে যাওয়ার পর ইমা‌মের কা‌ছে এরকম ব্যবহার পে‌য়ে‌ছে ব‌লে মে‌য়ের বাবার কাছ থে‌কে অ‌ভি‌যোগ পাওয়ার পর এলাকার মেম্বারসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ব‌সে বিষয়‌টি সমাধান করা হ‌য়ে‌ছে।

কৃষ্টপুর মসজিদের ইমাম মাওলানা মো.মোকাব্বের হোসেন মোবাই‌লে জানায়, মে‌য়ে‌টির অ‌ভি‌যোগ সত্য নয়।

স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুর রাজ্জাক জানায়, ঘটনা‌টি ইমাম সাহেবের সম্মানের দি‌কে চে‌য়ে সমাধান ক‌রে দেওয়া হ‌য়ে‌ছে।

সাটুরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আশরাফুল আলম বলেন, এ বিষ‌য়ে কেউ থানায় লি‌খিত অ‌ভি‌যোগ দা‌য়ের ক‌রেনি। লি‌খিত অ‌ভি‌যোগ দিলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ জাতীয় আরও খবর

১১৩ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হচ্ছে চাষাঢ়া-খাঁনপুর-হাজীগঞ্জ-গোদনাইল-আদমজী ইপিজেড সড়ক কাজ এগিয়ে চলছে

এসিল্যান্ডের হস্তক্ষেপে শিবালয়ের যমুনা ড্রেজার মুক্ত

নারায়ণগঞ্জে বাস চাপায় ইষ্ট ওয়েষ্ট ইউনিভার্সিটির দুই শিক্ষার্থী নিহত : অভিযুক্ত চালক গ্রেপ্তাার

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে মাসোহারা না দেয়ায় নির্যাতন, এএসআই ক্লোজড

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে পুলিশের সোর্স পরিচয়ে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন

নারায়ণগঞ্জে অটোরিক্সা চোর চক্রের ৬ সদস্য গ্রেপ্তার

নারায়ণগঞ্জে মাদকবিরোধী টাস্কফোর্সের অভিযান, গ্রেপ্তার ১৪

সিদ্ধিরগঞ্জে লন্ডন প্রবাসীকে মৃত দেখিয়ে প্রবাসীর বাড়ী দখল

ঘিওরে নবাগত ওসির সাথে সাংবাদিকদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

ঘুমন্ত স্বামীর বিশেষ অঙ্গন কর্তন, স্ত্রী গ্রেপ্তার

‘লাল পতাকা দেখালেও কথা শুনেনি চালক’

ধলেশ্বরী নদী থেকে মাছ ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার