আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

স্কুলছাত্রীর উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় দুই চাচাকে ছুরিকাঘাত

news-image

বগুড়ার শেরপুর উপজেলায় ভাতিজিকে নবম শ্রেণির স্কুলছাত্রীকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় বাড়িতে হামলা চালিয়ে তার দুই চাচাকে ছুরিকাঘাত করা হয়েছে।

শুক্রবার রাতে উপজেলার কুসুম্বি ইউনিয়নের বাগড়া কলোনীতে এ ঘটনা ঘটে।

আহত দুই চাচাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদের একজনের অবস্থা আশংকজনক।

শনিবার দুপুরে ভিকটিমদের মা আনোয়ারা বেগম শেরপুর থানায় চারজনের নাম উল্লেখ করো আরও অজ্ঞাত ৩-৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।

আহতরা হলেন- বগুড়ার শেরপুর উপজেলার বাগড়া কলোনীর মোক্তার হোসেনের দুই ছেলে আলী আজম (৩২) ও আবদুল আজিজ (২৮)।

পুলিশ ও এজাহার সূত্র জানায়, আহতদের বড় ভাই আলম হোসেন চাকরির সুবাদে পরিবারকে নিয়ে ঢাকায় অবস্থায় করেন। তাদের মেয়ে এখানে (দাদা বাড়ি) থেকে স্থানীয় স্কুলে নবম শ্রেণিতে পড়ে। একই এলাকার আবদুর রশিদের ছেলে বখাটে সজিব হাসান তার মেয়েকে উত্ত্যক্ত করে আসছেন। নিষেধ করলে ও পরিবারকে জানালে সজিব আরও ক্ষিপ্ত হয়।

এনিয়ে চাচা আজম ও আজিজের সঙ্গে তার বাকবিতণ্ডা হয়। এর জের ধরে শুক্রবার রাত সোয়া ১০টার দিকে সজিব ও তার লোকজন বাড়িতে হামলা চালায়। বাধা দিলে দুই ভাই আজিজ ও আজমকে ছুরিকাঘাত করে। মৃত ভেবে তারা পালিয়ে যায়।

স্থানীয়রা রক্তাক্ত দুইজনকে উদ্ধার করে প্রথমে শেরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। সেখানে তাদের অবস্থার অবনতি ঘটলে রাতেই বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

শনিবার দুপুরে বগুড়ার শেরপুর থানার ওসি শহিদুল ইসলাম জানান, আহত আজম ও আজিজের মা আনোয়ারা বেগম হামলাকারী হেলাল, তার ভাই আবদুর রশিদ, তার স্ত্রী কমেলা বেগম ও ছেলে সজিবের নাম উল্লেখ করে আরও অজ্ঞাত ৩-৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। মামলা রেকর্ড করা হয়েছে; আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

এ জাতীয় আরও খবর