আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের পৌনে ২ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

news-image

সড়ক ও জনপথ (সওজ) অধিদপ্তরের প্রায় পৌনে ২ কোটি টাকা আত্মসাৎ চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে মাদারীপুর জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি শাহাবুদ্দিন আহমেদ মোল্লার বিরুদ্ধে। তার বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ তুলে সওজের মাদারীপুর কার্যালয়ের সংশ্লিষ্ট নির্বাহী প্রকৌশলী বাদি হয়ে গত ২ সেপ্টেম্বর আদালতে মামলা করেছেন।
এদিকে মাদারীপুর যুগ্ম জেলা জজ দ্বিতীয় আদালতে করা ওই মামলায় শাহাবুদ্দিন মোল্লার সঙ্গে আসামি করা হয়েছে মেঘনা ব্যাংক লিমিটেডের ঢাকার চকবাজার শাখার ব্যবস্থাপক (ম্যানেজার) শেখ আনোয়ার হোসেনকে।

মামলার আসামিদের বিরুদ্ধে মাদারীপুরের শিবচরের হাজী শরীয়তুল্লাহ সেতুর টোল আদায়ের ১ কোটি ৭০ লাখ ৬০ হাজার ৫০০ টাকা নির্ধারিত সময়ের মধ্যে সওজের সংশ্লিষ্ট দপ্তরে জমা না দেওয়ার অভিযোগ আনা হয়েছে। এদিকে জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতির বিরুদ্ধে সরকারি টাকা আত্মসাৎ চেষ্টার অভিযোগে মামলা হওয়ায় বিষয়টি নিয়ে জেলাজুড়ে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।
সওজের টাকা আত্মসাৎ চেষ্টার অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে মাদারীপুর জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি শাহাবুদ্দিন আহমেদ মোল্লা মোবাইল ফোনে সাংবাদিকদের বলেন, ‘করোনাভাইরাসের কারণে দীর্ঘদিন গাড়ি চলাচল বন্ধ ছিল, আমরা তো টোল আদায় করতে পারিনি। সে সময় দুটি ইনস্টলমেন্ট জমা দেওয়া হয়নি। তবে এ ব্যাপারে এই মামলার আগেই ডিপার্টমেন্টের (সওজ) কাছে আমরা কয়েকটি প্রেয়ার দিয়েছিলাম। সেই কাগজপত্র দিয়ে আমরা হাইকোর্টে গিয়েছি, সেটা নিয়ে হাইকোর্ট স্টে করে দিয়েছে। সেই কাগজপত্র মাদারীপুর পৌঁছলে এ মামলার সমাধান হবে বলে আশা করি। হাইকোর্টের এই স্টে হয়তো মামলার বাদি জানে না। কারণ তাদের মামলার আগেই আমরা হাইকোর্টে গিয়েছি।’