আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

হাইকমান্ডের নির্দেশ অমান্য বিতর্কিতরা আওয়ামী লীগের তৃণমূল কমিটিতে

সম্মেলনের এক বছর পর সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদন করা হয়। দেখা যায়, ওই কমিটিতে স্থান পাওয়া একাধিক নেতার বিরুদ্ধে রয়েছে নানা অভিযোগ। বিতর্কিত কর্মকাণ্ডের জন্য বিভিন্ন সময় নেতিবাচক সংবাদের শিরোনাম হয়ে আলোচিত হন তারা। এসব ব্যক্তি কমিটিতে স্থান পাওয়ায় চরমভাবে ক্ষুব্ধ হন সিলেট আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। এমন চিত্র যে শুধু সিলেটেরই তা নয়, সারা দেশের। দলটির তৃণমূলে অর্থাৎ জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগের কমিটিগুলোয় ঢুকে পড়ছেন বিতর্কিতরা।

স্বাধীনতাবিরোধী জামায়াত-শিবির, মুক্তিযুদ্ধের চেতনার পরিপন্থি, সন্ত্রাসী এবং সামাজিক অপরাধের সঙ্গে যুক্তরা ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগকে নিরাপদ আশ্রয় বলে মনে করছেন। এর পাশাপাশি নির্বিঘ্নে নিজেদের অপকর্ম চালিয়ে যাওয়ার সুযোগ হচ্ছে তাদের। আওয়ামী লীগের কিছু নেতা ও সংসদ-সদস্য তাদের প্রশ্রয় দিচ্ছেন। ফলে তৃণমূলে এদের লাগাম টেনে ধরার ব্যবস্থা নেই। ঢালাও বক্তৃতা-বিবৃতি ও হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে দায়িত্ব এড়াচ্ছেন কেন্দ্রীয় নেতারা। দলটির বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে এসব তথ্য।

গত বছর ১২ জুন প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের সংসদীয় বোর্ডের সভায় দলটির সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আওয়ামী লীগে বিতর্কিত নেতাকর্মীদের একটি তালিকা তৈরি করে তাদের দল থেকে বহিষ্কার করার নির্দেশ দিয়েছিলেন। কিন্তু ওই নির্দেশ এখনো পুরোপুরি বাস্তবায়ন হয়নি। এমন পরিস্থিতিতে চলতি মাসে (৭ মে) গণভবনে অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সভায় দলটির সভাপতি শেখ হাসিনা পুনরায় একই নির্দেশ দেন।

এ ব্যাপারে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক শনিবার বলেন, দলের সভাপতি, বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে বিতর্কিতদের ব্যাপারে আমরা অত্যন্ত সতর্কতা অবলম্বন করছি। কোথাও যদি কোনো ভুল হয়ে গেছে বলে জানতে পারি, তাহলে তা অবশ্যই সংশোধন করা হবে।

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম জমি দখলকারী, বিতর্কিত এবং সন্ত্রাসীদের কমিটিতে না রাখার পরামর্শ দিয়েছেন। সম্প্রতি রাজধানীর দনিয়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ মাঠে অনুষ্ঠিত স্থানীয় আওয়ামী লীগের এক অনুষ্ঠানে তিনি এ পরামর্শ দেন। মির্জা আজম বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে গড়া দল আওয়ামী লীগ নিয়ে কেউ পদ বাণিজ্য করার দুঃসাহস দেখালে তাদের ছাড় দেওয়া হবে না। পদ বাণিজ্যের মাধ্যমে অযোগ্য ব্যক্তিদের দলে ঢোকালে এসব ব্যক্তি উইপোকার মতো কাজ করে। তারা বিতর্কিত কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে আওয়ামী লীগকে দুর্বল করে সাংগঠনিক ভিত ধ্বংস করে দেয়। তাই এসব পদ বাণিজ্যকারী এবং সুযোগসন্ধানীর ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে।

সূত্র জানায়, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে বন ও পরিবেশবিষয়ক সম্পাদকের দায়িত্ব পান মোস্তাক আহমদ পলাশ। সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার লোভাছড়া পাথরকোয়ারি থেকে অবৈধভাবে পাথর উত্তোলন ও পরিবেশ ধ্বংসের ব্যাপক অভিযোগ রয়েছে পলাশের বিরুদ্ধে। জেলা প্রশাসন লোভাছড়ায় অভিযান চালিয়ে পলাশের অবৈধভাবে মজুত করা পাথর জব্দ করে। সিলেটের ওই কমিটিতে বিভিন্ন কারণে সমালোচিত আরও কয়েকজন ব্যক্তিকে দেখা গেছে। এতে দলটির ত্যাগী নেতাকর্মীরা চরম অসন্তুষ্ট।

মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের কমিটি গঠন নিয়ে ঘটেছে অনুরূপ ঘটনা। সম্মেলনের দুই বছর তিন মাস পর প্রকাশ করা হয়েছে পূর্ণাঙ্গ কমিটি। ২০১৯ সালের নভেম্বরে সম্মেলন হয়। গত ২৬ ফেব্রুয়ারি জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নেছার আহমদ এমপি ও সাধারণ সম্পাদক মিছবাহুর রহমান স্বাক্ষরিত পূর্ণাঙ্গ কমিটির তালিকা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশিত হলে সমালোচনার ঝড় ওঠে। বিতর্কিতদের নিয়ে কমিটি গঠনের কারণে নেতাকর্মীরা যে চরম ক্ষুব্ধ, তা দেশের প্রায় সব গণমাধ্যমে এসেছে।

পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে রফিকুল ইসলাম রেনুকে সভাপতি এবং আ স ম কামরুল ইসলামকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে। সিনিয়র সহসভাপতি করা হয়েছে এলাকায় চরমভাবে বিতর্কিত একেএম সফি আহমদ সলমানকে। ২০১৬ সালে কুলাউড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের তৎকালীন সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রেনুর ওপর হামলার অভিযোগে একেএম সফি আহমদ সলমানকে বহিষ্কার করা হয়। পরের বছর সফি আহমদ সলমানের নানা অপকর্মের চিত্র তুলে ধরে দলের সভাপতি শেখ হাসিনাকে চিঠি দেন রফিকুল ইসলাম রেনু। উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান সভাপতি রফিকুল ইসলাম রেনু ২০১৯ সালে সভাপতি শেখ হাসিনাকে দেওয়া আরেক চিঠিতে একেএম সফি আহমদ সলমানের বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট ১০টি অভিযোগ করেন। সেখানে সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজি, কবরস্থান ও শ্মশানঘাট এবং ক্লিনিক দখল থেকে শুরু করে নারী নির্যাতন ও ধর্ষণের মতো অভিযোগও ছিল। নিজের স্ত্রী ছাড়াও অন্য এক নারী তার বিরুদ্ধে নারী নির্যাতন মামলা করেন। সফি আহমদ সলমান তাকে বিবস্ত্র করে-এমন অভিযোগও আনেন রফিকুল ইসলাম রেনু।

ভাষাসৈনিক সালেহা বেগমের মেয়ে অ্যাডভোকেট সৈয়দা ফেরদৌস আরা গত বছর ১১ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে অভিযোগ করেন, একেএম সফি আহমদ সলমান তার মায়ের পৈতৃক ভিটা দখল করে নিয়েছেন। পরে ২০২১ সালের ১৯ অক্টোবর ঢাকায় বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনে (ক্র‌্যাব) মায়ের পৈতৃক ভিটা দখলের বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন তিনি। গত বছর অক্টোবরে পরিবেশ অধিদপ্তর সফি আহমদ সলমানের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের এবং এক লাখ টাকা জরিমানা আদায় করেছে। উপজেলা নির্বাচনে তিনি বিএনপি-জামায়াতের সমর্থনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসাবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

গত বছর নভেম্বরে অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলের সিদ্ধান্ত অমান্য করে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় যাদের দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছিল, তাদের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার না করে স্থান দেওয়া হয়েছে সেই কমিটিতে। তাদের মধ্যে রয়েছেন একেএম নজরুল ইসলাম, খোরশেদ আহমদ খান, মহিবুল ইসলাম, খলিলুর রহমান ও আবদুল মালিক। এ নিয়ে তৃণমূল নেতাকর্মীরা চরম ক্ষুব্ধ। ইউপি নির্বাচনে যারা দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করে বিদ্রোহী প্রার্থী হয়েছিলেন, এমন ছয়জন ব্যক্তিকে উপজেলা কমিটিতে সদস্য পদে স্থান দেওয়া হয়েছে।

বিদ্রোহীদের বিষয়ে কঠোর নির্দেশনা ছিল দলের সভাপতি শেখ হাসিনার। কিন্তু কুলাউড়া আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের ক্ষেত্রে মানা হয়নি সেই নির্দেশনা। কমিটির নতুন সভাপতি রফিকুল ইসলাম রেনু নিজ ইউপির নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থীর পক্ষ নেন। এই ইউপির নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী পরাজিত হন। এই রেনু নিজের অবস্থান শক্তিশালী করতে বিএনপির সক্রিয় নেতাকর্মীকে আওয়ামী লীগে পদ পাইয়ে দিয়েছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। বিষয়টি প্রধানমন্ত্রীর এক গোপন প্রতিবেদনেও উঠে এসেছে।

মেহেরপুরের গাংনী উপজেলা আওয়ামী লীগের কমিটি রাজাকারমুক্ত করার দাবিতে ১৮ এপ্রিল সংবাদ সম্মেলন করেছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও কৃষক লীগের নেতাকর্মীরা। ‘রাজাকার, অনুপ্রবেশকারী ও হাইব্রিডমুক্ত আওয়ামী লীগ গঠন বাস্তবায়ন পরিষদ’ এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে। তারা অভিযোগ করেন, গত মাসে (এপ্রিল) অনুষ্ঠিত গাংনী উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে নেতাকর্মীদের মতামত উপেক্ষা করে মোহাম্মদ সাহিদুজ্জামান খোকনকে সভাপতি ও মকলেছুর রহমান মুকুলকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে। তাদের একজন মুকুল স্থানীয় সংসদ-সদস্য হলেও তার বাবা ছিলেন চিহ্নিত রাজাকার। অপরজনও রাজাকারপুত্র বলে সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়। তারা এই কমিটি রাজাকারমুক্ত করার দাবি জানান।

তৃণমূলের ত্যাগী নেতাদের বাদ দিয়ে মৃত ও বিতর্কিতদের নাম অন্তর্ভুক্ত করায় যশোর জেলা আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি সংশোধনের দাবি জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। গত বছর আগস্টে ত্যাগী ও বঞ্চিত নেতাদের ব্যানারে যশোর প্রেস ক্লাবে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে জেলা যুবলীগের সহসভাপতি সৈয়দ মেহেদি হাসান বলেন, ২০১৯ সালের ২৭ নভেম্বর যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। দীর্ঘ ২০ মাস পর পূর্ণাঙ্গ কমিটি দেয় কেন্দ্রীয় কমিটি।

কিন্তু সে কমিটিতে ত্যাগী ও যোগ্য সাবেক ছাত্রলীগ, যুবলীগ ও আওয়ামী লীগ নেতাদের রাখা হয়নি। অনৈতিক সুবিধা ও স্বজনপ্রীতির মাধ্যমে কমিটিতে ১২ জনকে স্থান করে দেওয়া হয়েছে। কমিটিতে রাখা হয় গোলাম রসুল নামে মৃত এক নেতার নাম। সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়, কমিটিতে স্থান পাওয়া ১২ ব্যক্তির কয়েকজন জামায়াত পরিবারের সদস্য। বঞ্চিত, দীর্ঘদিনের পরীক্ষিত ও ত্যাগী নেতাদের জায়গা করে দিতে নতুন এ কমিটি সংশোধনের জন্য দলীয় সভানেত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করা হয়েছিল সংবাদ সম্মেলনে।

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা আওয়ামী লীগের কমিটি থেকে স্বাধীনতাবিরোধীদের বাদ দেওয়ার দাবিতে গত বছর শহরের একটি চৌরাস্তা অবরোধ করেন নেতাকর্মীরা। তারা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন। বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা আওয়ামী লীগের কমিটিতে অনুপ্রবেশকারী, মাদক বিক্রেতা ও স্বাধীনতাবিরোধীদের অন্তর্ভুক্তের অভিযোগে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। ওই কমিটিতে সহসভাপতি পদ পান আবদুস সবুর মিয়া। মুক্তিযুদ্ধকালে তার বাবা শান্তি কমিটির চেয়ারম্যান ছিলেন বলে অভিযোগ করা হয়।

এ জাতীয় আরও খবর

নৌকায় বিদায় নেবেন দুর্গা, হবে বিজয় শোভাযাত্রা-সিঁদুর খেলা

অবৈধভাবে বালু তোলার দায়ে পাঁচজনের কারাদন্ড

জঙ্গিবাদ সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স: আইজিপি

অবৈধভাবে পাথর উত্তোলন করে অনেকে এখন শূন্য থেকে কোটিপতি -সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান।

অবৈধভাবে বালু উত্তোলন

চাটখিলে অবৈধভাবে বালু তোলায় ৩ জনের কারাদণ্ড

অবৈধ বালু উত্তোলনে হুমকিতে রাতারগুল জলারবন-প্রশাসনের নিষ্ক্রিয় ভূমিকার প্রতিবাদে ‘নাগরিকবন্ধন কর্মসূচি’

আজ মহানবমী, কাল শেষ হচ্ছে দুর্গোৎসব

ধর্ষণের পর অচেতন পরীক্ষার্থীকে হাসপাতালে রেখে পালাল বখাটে

পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী প্রকল্পের টাকায় খাসজমিতে আওয়ামী লীগের কার্যালয়

ব্রিজের রেলিংয়ে মাইক্রোবাসের ধাক্কা, ঝরল তিন প্রাণ

স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে বাসায় ওঠার পরদিন মিললো নারীর লাশ