আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

হেলিকপ্টারযোগে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ বিজিবির

news-image

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) হেলিকপ্টারযোগে সুনামগঞ্জ জেলার বন্যাদুর্গত মানুষের কাছে ত্রাণ পৌঁছে দিচ্ছে। বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) সকালে বিজিবি মহাপরিচালকের নির্দেশনায় বাহিনীর সদর দফতর থেকে হেলিকপ্টারে ত্রাণ নিয়ে সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার দুর্গম সীমান্তবর্তী এলাকায় বানভাসি মানুষের মাঝে বিতরণ করা হয়।

জনগণের নিরাপত্তার বিষয়টি বিবেচনা করে হেলিকপ্টার থেকে সরাসরি না ফেলে সীমান্তবর্তী টেকেরহাট ও চানঁপুর এলাকায় একহাজার পরিবারের প্রায় ৫ হাজার অসহায় মানুষের মাঝে বিতরণের জন্য বিজিবি সদস্যদের কাছে এসব ত্রাণসামগ্রী হস্তান্তর করা হয়।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ-বিজিবি’র জনসংযোগ কর্মকর্তা শরিফুল ইসলাম সই করা সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।
এছাড়া দেশের বিভিন্ন স্থানে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত জনগোষ্ঠীর উদ্ধার তৎপরতা ও তাদের মাঝে প্রয়োজনীয় ত্রাণসামগ্রী বিতরণ অব্যাহত রেখেছে বিজিবি।

বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) বিজিবি’র সুনামগঞ্জ ব্যাটালিয়নের তত্ত্বাবধানে টেকেরহাট এলাকায় ৩৫০টি পরিবারের মাঝে ত্রাণসামগ্রী, সুনামগঞ্জ ব্যাটালিয়ন সদরের আশেপাশে বিভিন্ন এলাকার বন্যাদুর্গত মানুষের মাঝে ২০০ প্যাকেট রান্না করা খাবার এবং এক হাজার বোতল বিশুদ্ধ পানি বিতরণ, সিলেট ব্যাটালিয়নের তত্ত্বাবধানে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার ২০০টি অসহায় পরিবার, বিয়ানীবাজার ব্যাটালিয়নের তত্ত্বাবধানে নয়াগ্রাম এলাকার ৩০টি পরিবার এবং সীমান্ত পরিবার কল্যাণ সমিতি (সীপকস), কুড়িগ্রাম উপশাখা কর্তৃক ধরলা নদীর পার সংলগ্ন বন্যাকবলিত ৫০টি অসহায় পরিবারের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, সাম্প্রতিক বন্যা শুরু হওয়ার পর থেকেই দেশের বিভিন্ন প্রান্তে সীমান্তবর্তী বন্যাকবলিত অসহায় প্রান্তিক জনগণের পাশে দাঁড়িয়েছে বিজিবি। সিলেট ও সুনামগঞ্জ ছাড়াও লালমনিরহাট, কুড়িগ্রাম, শেরপুর, জামালপুর, নেত্রকোনাসহ বন্যাকবলিত বিভিন্ন স্থানে বিজিবি বন্যার্তদের সহায়তায় কাজ করে যাচ্ছে। এ লক্ষ্যে বিজিবি বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তার জন্য ০১৭৬৯৬০০৫৫৫ এবং ০১৮৮৯৬০০৫৫৫ দুটি টোল ফ্রি নম্বর চালু করেছে।

গত ১৭ জুন থেকে অদ্যাবধি বন্যাদুর্গত এলাকার প্রায় ২ হাজার মানুষকে উদ্ধার করে নিরাপদ স্থানে পৌঁছে দিয়েছে বিজিবি। এ সময়ে বন্যাদুর্গত এলাকার ৭ হাজার ৯৪২টি পরিবারের ৩১ হাজার ৭৬৮ জন বন্যার্তের মাঝে শুকনো ত্রাণসামগ্রী বিতরণ, ৪২৫০ জনকে রান্না করা খাবার এবং ৬ হাজার ০৯০ বোতল বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ করা হয়েছে। এছাড়া বন্যাদুর্গত এলাকার ২ হাজার ৬৬০ জনকে জরুরি চিকিৎসা সেবা ও বিনামূল্যে ওষুধ সরবরাহ করেছে বিজিবি।

এ জাতীয় আরও খবর

পদ্মা সেতু: শিল্পের জন্য প্রস্তুত গোপালগঞ্জ

এখন যানবাহনের অপেক্ষায় ফেরি

ফেরিতে পাঁচ ভাগের এক ভাগে নেমে এলো ছোট গাড়ি

বাঁশখালীতে বিদ্যুৎকেন্দ্রে বিস্ফোরণ

মানিকগঞ্জে পদ্মা সেতুর লাইভ অনুষ্ঠানে অস্ত্র নিয়ে মহড়া, সাংবাদিক গ্রেপ্তার

উল্লাসে মেতেছে পদ্মা পাড়ের মানুষ

চার মাস না যেতেই উঠছে ৯ কোটি টাকার সড়কের পিচ

পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষ্যে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর পিঠা উৎসব

নদী ভাঙা মানুষের বিলাপ

সাঁতরে মঞ্চে গিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলল কিশোরী

বঙ্গবন্ধুর শ্রেষ্ঠ উপহার স্বাধীনতা, আর প্রধানমন্ত্রীর শ্রেষ্ঠ উপহার পদ্মা সেতু : পাট ও বস্ত্রমন্ত্রী

সেতুর উদ্বোধনে ফায়ার সার্ভিসের শোভাযাত্রা