আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

১১৩ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হচ্ছে চাষাঢ়া-খাঁনপুর-হাজীগঞ্জ-গোদনাইল-আদমজী ইপিজেড সড়ক কাজ এগিয়ে চলছে

news-image

নূরুল আজিজ চৌধূরী নারায়নগঞ্জঃ নারায়ণগঞ্জ শহরের চাষাঢ়ার চাঁনমারী থেকে সিদ্ধিরগঞ্জের আদমজী ইপিজেড পর্যন্ত ১১৩ কোটি ৫১ লাখ টাকা ব্যয়ে সাড়ে ৬ কিলোমিটার দীর্ঘ চাষাঢ়া-খাঁনপুর-হাজীগঞ্জ-গোদনাইল-আদমজী ইপিজেড নামে একটি সড়ক নির্মিত হচ্ছে। সড়কের নির্মাণ কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে। সওজ কর্তৃপক্ষের দাবি ইতোমধ্যে সড়কটি পায় ৫০ ভাগ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। সড়কের কাজটি ২০২৩ সালের নির্ধারিত সময়েই শেষ করার আশা করছেন সওজ কর্তৃপক্ষ। এ সড়কটি চালু হলে আদমজী থেকে চাষাঢ়া ও চাষাঢ়া থেকে আদমজী দ্রুত সময়ের মধ্যে লোকজন যাতায়াত করতে পারবে। এ সড়কটি নির্মিত হওয়ায় স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে স্বস্তি ফিরে আসবে।

জানা যায়, পুরাতন নারায়ণগঞ্জ-আদমজী-শিমরাইল সড়কের পাশে গড়ে উঠেছে আদমজী ইপিজেড। এখানে প্রায় ৭০ হাজার শ্রমিক কাজ করছে। প্রতিনিয়ত এ সড়কটি দিয়ে শ্রমিকরা আসা-যাওয়া করছে। এ সড়কের পাশে সিদ্ধিরগঞ্জে গড়ে উঠেছে নারায়ণগঞ্জ সাইলো খাদ্য গুদাম গোদনাইলে গঠে উঠেছে পদ্মা ও মেঘনা কোম্পানীর পেট্টোলিয়াম কর্পোরেশনের ডিপো। এ ডিপো দুটি থেকে প্রতিনদিন শত শত ট্যাঙ্কলরি জ¦ালানী তেল নিয়ে বিভিন্ন স্থানে এ সড়কটি দিয়ে যাতায়াত করছে। নারায়ণগঞ্জ সাইলো থেকে গম বোঝাই করেও অসংখ্য ট্রাক এ সড়ক দিয়ে বিভিন্ন স্থানে যাচ্ছে। এ ছাড়াও এ সড়কের আশপাশে গড়ে উঠেছে গার্মেন্টস কারখানাসহ অংসংখ্য শিল্পকারখানা। ফলে এ সড়কটি ব্যস্ততম সড়কে পরিণত হয়েছে। সড়কের বিভিন্ন স্পটে প্রায়ই সময় যানজট সৃষ্টি হয়ে চরম দুর্ভোগ পোহাতে বাধ্য হয়। স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান এ এলাকার লোকজনের কথা চিন্তা করে চাষাঢ়া-আদমজী পরিত্যক্ত ও পুরাতন রেললাইনটি সড়কে পরিণত করার উদ্যোগ গ্রহণ করেন। ফলে চাষাঢ়া-খাঁনপুর-হাজীগঞ্জ-গোদনাইল-আদমজী ইপিজেড সড়কটি নির্মাণ করা হচ্ছে। সওজ সূত্রে জানা যায়, এ সড়কটি ১১৩ কোটি ৫১ লাখ ৬৯ হাজার টাকায় ব্যয় নির্মাণ করা হচ্ছে। ২০১৯ সালের ১৮ নবেম্বর চাষাঢ়া-খাঁনপুর-হাজীগঞ্জ-গোদনাইল-আদমজী ইপিজেড সড়ক নির্মাণের অনুমোদন দেয়া হয়। প্রথমে মেয়াদ কাল ধরা হয়েছিল ২০১৯ সালের ১ জুলাই থেকে ২০২১ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত। পরে এর সময় বাড়িয়ে নির্মাণ কাল ধরা হয়েছে ২০২১ সালের ১ জুলাই থেকে ২০২৩ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত। জানা যায়, এ সড়কটি চাষাঢ়ার চাঁনমারী এলাকায় ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিঙ্করোডের সঙ্গে ও সিদ্ধিরগঞ্জের আদমজী ইপিজেড এলাকায় নারায়ণগঞ্জ-আদমজী-শিমরাইল সড়কের সঙ্গে যুক্ত হচ্ছে।
সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, সড়কের বিভিন্ন স্থানে বালু ফেলে ভরাট করা হচ্ছে। অনেক স্থানের অবৈধ স্থাপনা ভাঙ্গা হচ্ছে। সড়কের নিচ দিয়ে নির্মাণ করা হচ্ছে ৩টি ব্রিজ। যেখানে প্রয়োজন সেখানে থাকছে ড্রেনসহ ফুটপাত। কদমতলী পুল এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, সড়কে ইটের সুরকি বিছানো হয়েছে। সোনামিয়ার বাজার এলাকায় রাস্তার নিচ দিয়ে ব্রিজ নির্মাণ করা হচ্ছে। নিচ উদ্যোগে অবৈধ স্থাপনা অনেককেই সরিয়ে নিতেও দেখা গেছে। স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, এ সড়কটি চালু হলে সিদ্ধিরগঞ্জের কদমতলী, সোনামিয়া বাজার, আইলপাড়া, এসওরোড, গোদনাইল, চৌধুরীবাড়ি, হাজীগঞ্জ ও তল্লাসহ বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দাদের চলাচলের পথ সুগম হবে। সহজেই তারা নারায়ণগঞ্জ শহরে চলাচল করতে পারে। গোদনাইলের বাসিন্দা ফরিদাআজিজ ও আলী বলেন, এ সড়কটি চালু হলে পুরাতন নারায়ণগঞ্জ-আদমজী-শিমরাইল সড়কটির ব্যস্ততা কিছুটা হলেও কমে আসবে। এ সড়কের যানজটও কমে আসবে। দ্রুত সময়ে শহরে যাতায়াত করা যাবে। সোনামিয়ার বাজার এলাকার বাসিন্দা সৈকত ও রাজ্জাক জানান, চাষাঢ়া-খাঁনপুর-হাজীগঞ্জ-গোদনাইল-আদমজী ইপিজেড সড়কটি নির্মিত হওয়ায় যারা রেলওয়ের জায়গা দখল করে রেখেছিল তাদের সাময়িক অসুবিধা হলেও সড়কটি চালু হলে লোকজনের অনেক উপকার হবে। এলাকার উন্নতি হবে। চলাচলের পথ আরো সুগম হবে। একই এলাকার জয়নাল স্যার জানান, রেলওয়ের জায়গায় এ সড়কটি নির্মিত হচ্ছে। এখনো অনেক স্থানে রেলওয়ের জায়গা দখল করে রাখা হয়েছে। পশ্চিত তল্লার বাসিন্দা আরিফুর হোসেন জানান, পুরাতন চাষাঢ়া-আদমজী রেললাইনটি সড়কে পরিণত হওয়ায় আমাদের চলাচলের পথ অনেক সুগম হচ্ছে। আমরা বিকল্পভাবে সড়ক পথে যাতায়াত করতে বাধ্য হই। এখন এ সড়কটি চালু হলে দ্রুত আমরা নির্ধারিত গন্তব্যে যাতায়াত করতে পারবে। গোদনাইলের বাসিন্দা আবু মুসা জানান, পরিত্যক্ত রেললাইনটি সড়কে পরিণত হওয়ায় যারা রেলওয়ের জায়গা দখল করে রেখেছিলেন তাদের অসুবিধা হয়েছে। আর সাধারণ জনগণের সুবিধা হচ্ছে। এ সড়কটি চালু হলে এ এলাকার যোগাযোগ ব্যবস্থা আরো এক ধাপ এগিয়ে যাবে।
নারায়ণগঞ্জ সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগের সড়ক উপ-বিভাগ-২ এর উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মোঃ সামিউল কাদির খান বলেন, চাষাঢ়া-খাঁনপুর-হাজীগঞ্জ-গোদনাইল-আদমজী ইপিজেড সড়কটি সাড়ে ৬ কিলোমিটার দীর্ঘ ও ৪২ ফুট চওড়া করে নির্মাণ করা হচ্ছে। সড়কটি রেলওয়ের জায়াগায় নির্মাণ করা হচ্ছে। সড়কের সম্পুর্ণ জায়গাটি রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের। রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ যেভাবে আমাদের বুঝিয়ে দিবে সেভাবেই আমরা সড়কের নির্মাণ কাজ করবো। এ সড়কের প্রয়োজনীয় স্থানে থাকছে ড্রেনসহ ফুটপাত। সড়কের নিচ দিয়ে ৩টি ব্রিজ থাকছে। সড়কটি ইতোমধ্যে ৫০ ভাগ কাজ সম্পন্ন হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন। তিনি বলেন, আশা করা যায় নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই সড়কটির নির্মাণ কাজ শেষ হবে।

এ জাতীয় আরও খবর

এসিল্যান্ডের হস্তক্ষেপে শিবালয়ের যমুনা ড্রেজার মুক্ত

নারায়ণগঞ্জে বাস চাপায় ইষ্ট ওয়েষ্ট ইউনিভার্সিটির দুই শিক্ষার্থী নিহত : অভিযুক্ত চালক গ্রেপ্তাার

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে মাসোহারা না দেয়ায় নির্যাতন, এএসআই ক্লোজড

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে পুলিশের সোর্স পরিচয়ে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন

নারায়ণগঞ্জে অটোরিক্সা চোর চক্রের ৬ সদস্য গ্রেপ্তার

নারায়ণগঞ্জে মাদকবিরোধী টাস্কফোর্সের অভিযান, গ্রেপ্তার ১৪

সিদ্ধিরগঞ্জে লন্ডন প্রবাসীকে মৃত দেখিয়ে প্রবাসীর বাড়ী দখল

ঘিওরে নবাগত ওসির সাথে সাংবাদিকদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

ঘুমন্ত স্বামীর বিশেষ অঙ্গন কর্তন, স্ত্রী গ্রেপ্তার

‘লাল পতাকা দেখালেও কথা শুনেনি চালক’

ধলেশ্বরী নদী থেকে মাছ ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার

সিদ্ধিরগঞ্জে জ্বালানী তেলসহ চোরাই চক্রের ২ সদস্য গ্রেফতার, ১,৬০০ লিটার ডিজেল সহ ১টি পিকআপ জব্দ