আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

৬ ছাত্র হত্যার ফাঁসির আসামিকে নৌকার মনোনয়ন, পরে প্রত্যাহার

সাভারের আমিন বাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে ছয় ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যার মামলায় সম্প্রতি মৃত্যুদণ্ডের রায় ঘোষণা করা হলেও শনিবার গণভবন থেকে তার নামে নৌকার প্রতীক দেয়া হয়। এ ঘটনায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনা শুরু হলে এক ঘণ্টা পর তা বাতিল করা হয়েছে।
এর আগে সাভারের ১১টি ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের মনোনীত প্রার্থীদের তালিকাও আসে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। যেখানে আমিনবাজার ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেনকে নৌকার মনোনয়ন দেয়া হয়।
পরে রাতেই আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে অসাবধানতাবশত ভুল হওয়ার বিষয়টি জানানো হয়।
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘আজ ৪ ডিসেম্বর ২০২১ শনিবার বিকেল ৪টায় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুকন্যা দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকারি বাসভবন গণভবনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সংসদীয় ও স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের মুলতবি সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী মনোনীত প্রার্থীদের একটি তালিকা প্রকাশ করা হয়। প্রকাশিত তালিকায় অসাবধানতাবশত নিম্নোক্ত একটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে মনোনীত প্রার্থীর পরিবর্তে ভুল নাম লিপিবদ্ধ হয়। এই ইউনিয়নে পরে মো. রাকিব হোসেনকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন দেয়া হয়।
প্রসঙ্গত, ২০১১ সালে সাভারের আমিনবাজার ইউনিয়নে ডাকাত আখ্যা দিয়ে ৬ শিক্ষার্থী পিটিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় করা মামলায় ১০ বছর পরে ২ ডিসেম্বর আমিনবাজার ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেনসহ ১৩ আসামির মৃত্যুদণ্ড দেয় আদালত। আজীবন কারাদণ্ড দেয়া হয় আরও ১৯ আসামিকে।