আমরা নিরপেক্ষ নই আমরা সত্যের পক্ষে

৭০৮ ইউপিতে আজ ভোট সহিংসতার শঙ্কায় ১৮ জেলায় বাড়তি নিরাপত্তা

news-image

উৎসব ও শঙ্কার মধ্যে পঞ্চম ধাপের ৭০৮টি ইউনিয়ন পরিষদে (ইউপি) আজ ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। ৪০টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোট নেওয়া হবে। বাকিগুলোতে কাগজের ব্যালটে ভোট হবে। সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত টানা ভোটগ্রহণ চলবে। এদিকে পঞ্চম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণে সহিংসতার শঙ্কায় ১৮টি জেলার ৩১ উপজেলায় অনুষ্ঠেয় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এসব জায়গায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বাড়তি সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। ইসি সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, পঞ্চম ধাপে ৪৮ জেলার ৯৫ উপজেলায় ভোট হবে। ১৯টি জেলার ৩১টি উপজেলায় বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। তিনটি জেলায় ম্যাজিস্ট্রেট এবং বিজিবি ও র‌্যাবের বাড়তি সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। সেগুলো হচ্ছে-চাঁপাইনবাবগঞ্জের সদর, মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া ও নওগাঁর পত্নীতলা। এ ছাড়া বাড়তি ম্যাজিস্ট্রেট মোতায়েন করা হয়েছে-নীলফামারীর ডোমার, ফরিদপুরের মধুখালী ও সদরপুর, গাইবান্ধার সাঘাটা ও ফুলছড়ি, শেরপুরের ঝিনাইগাতী ও শ্রীবরদী, হবিগঞ্জের মাধবপুর ও চুনারুঘাট, কুমিল্লার নাঙ্গলকোট, চান্দিনা ও লালমাই এবং গাজীপুরের শ্রীপুরে। এ ছাড়া র‌্যাব ও বিজিবির বাড়তি সদস্য বাড়ানো হয়েছে সাতক্ষীরার আশাশুনি, শ্যামনগর ও কলারোয়া, চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ, হাইমচর ও কচুয়া, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সদর ও আশুগঞ্জ, জামালপুরের বকশীগঞ্জ ও দেওয়ানগঞ্জ, চট্টগ্রামের বোয়ালখালী ও চন্দনাইশ, মানিকগঞ্জের হরিরামপুর ও দৌলতপুর এবং ভোলা সদরে।

ইসির একাধিক কর্মকর্তা নাম গোপন রাখার শর্তে বলেন, ভোটে সহিংসতার শঙ্কায় স্থানীয় প্রশাসন থেকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বাড়তি সদস্য মোতায়েনের চাহিদা আসছে। ওই চাহিদা এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সক্ষমতা বিবেচনা করে বাড়তি সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, এ ধাপের নির্বাচনেও আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী ছাড়াও দলটির বিপুলসংখ্যক বিদ্রোহী প্রার্থী মাঠে রয়েছেন। ক্ষমতাসীন দলের একাধিক প্রার্থী মাঠে থাকায় সহিংসতার শঙ্কাও রয়েছে। এসব বিবেচনায় বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়। যদিও ৪৮ চেয়ারম্যানসহ ১৯৩ জন জনপ্রতিনিধি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী হয়েছেন। তাদের মধ্যে সংরক্ষিত সদস্য ৩৩ এবং সাধারণ সদস্য ১১২ জন। বাকি পদগুলোতে ভোট হবে।

জানা গেছে, পঞ্চম ধাপে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৩৬ হাজার ৪৫৭ জন প্রার্থী। তাদের মধ্যে চেয়ারম্যান ৩ হাজার ২৭৪ জন, সংরক্ষিত সদস্য ৭ হাজার ৯৫০ এবং সাধারণ সদস্য ৩৯ হাজার ৩৯১ জন। এ ধাপে মোট ভোটার সংখ্যা ১ কোটি ৪২ লাখ ২০ হাজার ১৯৫ জন। এর মধ্যে নারী ভোটার ৬৮ লাখ ৩৬ হাজার ৩১ জন ও পুরুষ ৭০ লাখ ৬০ হাজার ১৪০ জন এবং তৃতীয় লিঙ্গের ভোটার ২১ জন।

যশোর ও কেশবপুর : যশোর সদর ও কেশবপুর উপজেলার ২৬ ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ হবে। নির্বাচন ঘিরে টানটান উত্তেজনা বিরাজ করছে। এ ব্যাপারে সতর্ক রয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীও। কেশবপুর ও সদর উপজেলায় ২৬টি ইউনিয়নের মধ্যে শুধু সদর উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়ন পরিষদে ইভিএমে ভোট নেওয়া হবে। বাকি ২৫টি ইউনিয়নে ব্যালটে ভোটাররা ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।

রাজশাহী : রাজশাহীর তিনটি উপজেলার ১৯ ইউনিয়নে ভোট গ্রহণ করা হবে। এর মধ্যে বাগমারা উপজেলার ১৬টি, পুঠিয়ার দুটি ও দুর্গাপুর উপজেলার একটি ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ চলবে। ১৯ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন ৬৩ জন প্রার্থী। এ ছাড়াও সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ২০০ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ৬৬৯ জন প্রার্থী রয়েছেন। ১৯ ইউনিয়নে ভোটকেন্দ্র ১৮৬টি। এর মধ্যে ঝুঁকিপূর্ণ ১০০টি। বাগমারার ১৬ ইউনিয়নে ভোটকেন্দ্র ১৫৩টি। এর মধ্যে ৭২টি ঝুঁকিপূর্ণ হিসাবে চিহ্নিত করা হয়েছে। অপরদিকে পুঠিয়া উপজেলার দুটি ইউপিতে ২৪টি কেন্দ্রে ভোট হবে। এর মধ্যে ঝুঁকিপূর্ণ ১২টি।

চট্টগ্রাম ও আনোয়ারা : চট্টগ্রামের আনোয়ারা, চন্দনাইশ ও বোয়ালখালী উপজেলার ২৪ ইউনিয়নে ভোট নেওয়া হবে। আনোয়ারা, বোয়ালখালী ও চন্দনাইশের ২৪টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ২২০টি ভোটকেন্দ্রের ১ হাজার ১২৭টি বুথে ভোট গ্রহণ করা হবে। সব মিলিয়ে ভোটার রয়েছেন ৪ লাখ ৮ হাজার ২৮৩ জন। আনোয়ারায় ১০টি ইউপিতে ২২ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

সিলেট : সিলেট বিভাগে ৭৫টি ইউনিয়নে ভোট নেওয়া হবে। কমলগঞ্জে সাবেক চিফ হুইপ এমএ শহীদের গাড়িবহরে বিদ্রোহীর হামলার পর নির্বাচনে সহিংসতার আশঙ্কা করছেন অনেকেই। ওই ঘটনার পর বিভাগজুড়ে আলোচনায় এখন কমলগঞ্জ। তবে ভোটগ্রহণ সুষ্ঠু করতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে কয়েক স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। সিলেট বিভাগের ৭৫টি ইউনিয়নের মধ্যে সিলেটের জকিগঞ্জ ও কানাইঘাট উপজেলার ১৮ ইউপি, সুনামগঞ্জের ১৮ ইউপি, মৌলভীবাজারের ১৮ ইউপি ও হবিগঞ্জের ২১টি ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

রাজবাড়ী : রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার ১০টি ইউনিয়নে ভোট নেওয়া হবে। পাংশার ১০টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৪৯ জন, সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১০৭ জন, সাধারণ সদস্য পদে ৩৩৫ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় পঞ্চম ধাপের ৪ ইউনিয়নে ভোট নেওয়া হবে। ইউনিয়নগুলো হচ্ছে ২নং ধানীসাফা, ৪নং দাউদখালী, ৬নং টিকিকাটা ও ১১নং বড়মাছুয়া। এর মধ্যে ধানীসাফা ও বড়মাছুয়ায় ইভিএমে ভোট নেওয়া হবে।

পার্বতীপুর (দিনাজপুর) : দিনাজপুরের পার্বতীপুরে ৮টি ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ৮ ইউনিয়নে ৪৯ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) : মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার ৯টি ইউপিতে ভোট নেওয়া হবে। এতে চা শ্রমিক ভোটাররা পড়েছেন বিপাকে। তবে চা শ্রমিকরা নিজেদের নির্ধারিত ছুটি থেকে ভোটের দিন ছুটি নিতে পারবেন বলে চা বাগান ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন। কমলগঞ্জের ২২টি চা বাগানের প্রায় ৪০ হাজার ভোটার ভোট দিয়ে চেয়ারম্যান ও সদস্য নির্বাচন করেন।

ফরিদগঞ্জ (চাঁদপুর) : চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার ১৩টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে ৭৩ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী, সংরক্ষিত ওয়ার্ডের ১২৪ জন এবং সাধারণ সদস্য ৫১৫ জনসহ ৬৯৩ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এ জাতীয় আরও খবর